“হারলে কেনো ভাই”? অনুব্রতর প্রশ্ন শুনে তৃনমুল নেতা বললেন- ‘মন্ত্রীর জন্য, দিনে তৃনমুল করে আর রাতে বিজেপি’!

সামনে একুশের ভোট তার আগে জোরকদমে চলছে প্রস্তুতি ।রাজনৈতিক দল চাইছে এবার টেক্কা দিতে শাসকদল কে । কিন্তু তারাও হাত গুটিয়ে বসে নেই ।কোথায় কি কমতি আছে, কোথায় কোন কাজ হয়নি সেসব তালিকা করার সময় হয়ত এবার চলে এসেছে। কারণ ভোট যে আর বেশি দেরি নেই। পুনরায় আবার ক্ষমতায় থাকতে হবে ।কাজের চাপ বেড়েছে, বিভিন্ন জেলা দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মন্ত্রীদের উপর কঠোর হয়েছে নিয়ম ।

একে এই ভয়াবহ পরিস্থিতি ,তারপর সামনে ভোট । একেই শাসক দলকে বিভিন্ন কারণে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে ।তবে তার উত্তরও জানা ছিল শাসক দলের ।তাই সেসব প্রশ্নের উত্তর দিতে বিন্দুমাত্র দেরি করেনি তারা । কিন্তু সামনে ভোটকে মাথায় রেখেই এবার মেপে পা ফেলতে চলেছে তৃণমূল সরকার ।

জেলায় জেলায় বারবার সাংবিধানিক মিটিং করা হচ্ছে ।সাধারণ মানুষের বাড়ি পৌঁছাচ্ছে জেলা সভাপতি থেকে কাউন্সিলর। সাধারণ মানুষের কি কি অসুবিধা জানার চেষ্টা করছেন তারা ।এরকমই একদিন বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল একটি সাংবিধানিক মিটিংয়ে জিজ্ঞেস করেন যে কত ভোটে তারা পিছিয়ে আছে সেই অঞ্চলে।

উত্তর আসে ১৪১ টি কিন্তু কেন জিজ্ঞেস করাতে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য । সেই দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি জানান যে তাদের অঞ্চলের মন্ত্রীর জন্য তারা হেরে আছে। তার বক্তব্য সেই মন্ত্রী সকালে তৃণমূল এবং রাতের বিজেপি করেন ।অর্থাৎ দুই নৌকায় পা দিয়ে চলেন ।

চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসতেই রীতিমত হতাশ হয়েছেন জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। ওই ব্যক্তি জানান এলাকার যাবতীয় নালিশ ওই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ।এমন একটি সময় গেছে যখন বাম শাসিত অঞ্চলের তারা আসন লাভ করেছে কিন্তু এখন ১৪১ ভোটে পিছিয়ে থাকার মূল কারণ ওই মন্ত্রী ।তবে সমস্ত পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে ওই দিন অনুব্রত মণ্ডল ওই মন্ত্রী কে অন্য কোন পদে স্থানান্তরিত করার ব্যবস্থা করবেন এই বলে আশ্বস্ত করেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button