মুসলিম হয়েও হিন্দু দেবী দুর্গার সাজ সেজেছেন কেন? নেটিজেনদের করা প্রশ্নের কড়া উত্তর দিলেন সাংসদ নুসরত জাহান

মহালয়ায় দেবী দূর্গা সেজে কট্টরপন্থীদের রো-ষান-লে পড়েছিলেন তৃণণূল কংগ্রেসের সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান । মুসলিম হয়ে দূর্গা সাজার জন‍্য তাঁকে তুলোধনা করা হতে থাকে সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন নুসরত। নিজের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করে সাফ জানালেন “তিনি একজন মানুষ। সেটাই তাঁর পরিচয়।”

মহালয়ায় মহিষাসুরমর্দিনী দেবী দুর্গা রূপে ধরাদেন সাংসদ অভিনেত্রী নুসরাত জাহান, তার অনুরাগীদের কাছে।

হাতে ত্রিশূল, শাখা পলা, আটপৌড়ে শাড়ি, এমনই সাজে ধরা দেন নুসরত। কখনো তাঁর দৃষ্টি নরম, মাতৃসুলভ। আবার কখনো তাঁর চোখ দিয়ে ঝড়ছে ক্রোধ, দুষ্টের বিনাশের জন‍্য দূর্গা রূপেই এদিন হাজির হন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ। সকলকে জানালেন মহালয়ার শুভেচ্ছা।

তার সেই ফটোশুট, ভিডিও প্রকাশ‍্যে আসতেই রে রে করে ওঠেন কট্টরপন্থীরা। মুসলিম পরিবারে এসে অহিন্দু হয়ে হিন্দুদের উৎসবে যোগদান করেছেন কেন? হাতে ত্রিশূল নেওয়ার তার এত বড় স্পর্ধা হয় কি করে? এমনকি ভিন্নধর্মী হওয়ার দেবী দূর্গার রূপে একেবারেই মানাচ্ছে না নুসরতকে। এমন সমালোচনা ও মন্তব‍্যও রয়েছে ভূরি ভূরি।

কিন্তু কোনো সমালোচনাকে পাত্তা দিচ্ছেন না নুসরত। তিনি এমন একটি কাজ করতে পেরে যথেষ্ট খুশি।তার সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন অনেক টলিউড সেলেব ও নেটজেনরা। তার এমনি আরো কিছু ভিডিও আগেও ভাইরাল হয়েছে এমনকি সমালোচিত হয়েছে কিন্তু নুসরত এসবে কান দেননি। তিনি নিজের মতো কাজ করে যেতে চান। টুইট করে নুসরত জানিয়েছেন ” আগে আমি একজন মানুষ, সেটাই আমার একমাত্র পরিচয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button