রাজ্যে কবে পুরোপুরি খুলে যাচ্ছে স্কুল-কলেজ? স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমরা সকলেই জানি এই পরিস্থিতকে দমিয়ে রাখতে দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন । কোথাও কোথাও আবার কার্ফু জারি ও হয়েছে । মার্চ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে বন্ধ সব স্কুল কলেজ । WHO এর গাইডলাইন্স অনুযায়ী জমায়েত জায়গা থেকে দ্রুত হারে ছড়াতে পারে সং-ক্র-মণ । তাই দেশের সমস্ত রাজ্য গুলি তড়িঘড়ি করে বন্ধ করে স্কুল কলেজ এর মত বড় জমায়েত এর স্থান গুলি । ছাত্র ছাত্রীদের জীবনের সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যগুলি । বন্ধ করা হয়েছে শপিং মল , রেঁস্তোরা ।

স্কুল কলেজ বন্ধ থাকার ফলে রীতিমতো পিছিয়ে পড়ছে ছাত্রজীবন । কিন্তু তারও বিকল্প পথ ভেবে রেখেছে রাজ্যগুলি । অনলাইনে ক্লাস শুরু করা হয়েছে । কিন্তু এতে ঠিক কতটা উপকারী হবে তা এখনো স্পষ্ট হয় নি । আবার এই দিকে উনিভার্সিটি, বা সংশ্লিষ্ট বোর্ড গুলি পরীক্ষা নেবার কথা জানিয়েছে । এমতাবস্থায় কি ভাবে সেটা সম্ভব সেটা বুঝে উঠতে পারছে না ছাত্র ছাত্রীর সাথে তাদের অভিভাবকরাও ।

আনলক পর্ব শুরু হয়েছে তবে সব দিক মাথায় রেখেই আগামী ২১ সে সেপ্টেম্বর থেকে শর্তসাপেক্ষ ভাবে নবম ও দশম শ্রেণীর ক্লাস চালু করার কথা জানান কেন্দ্র । এ বিষয় এ পাল্টা জবাব দেয় রাজ্য সরকার । এক অনুষ্ঠানে এসে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান যে ” এই ভ-য়া-বহ পরিস্থিতি তে কোনো মতেই স্কুল কলেজ খোলা সম্ভব নয় ” । ফের আরো একবার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে খারিজ করলো রাজ্য সরকার । তাহলে কি সত্যি রাজনীতির কারণে ফল ভুগতে হচ্ছে ছাত্র ছাত্রী দের? এমনটাই প্রশ্ন অনেকের ।

আবার এই দিকে এবছর চলতি শিক্ষা বর্ষে পাশের হার এতই বেশি যে ৯৫% নম্বর পাওয়া ছাত্র ছাত্রীরা ভর্তি হতে পারছেন না । যে ব্যাপারে পার্থ বাবু বলেন ” যারা ৯৬ বা ৯৭ শতাংশ নম্বর পেয়েছে তাদের তো আগে ভরতি নিতে হবে। যাতায়াতের সুবিধা আছে এমন কলেজেও ভরতি ঝোঁক বেশি। ভরতি হতে পারছে না এই কথাটা আপত্তিজনক। আমাদের সরকার স্নাতকে সবাইকে ভরতি করাতে বদ্ধপরিকর।

উচ্চমাধ্যমিক পাশ করা সবাই ভরতির সুযোগ পাবে। আগে বিভিন্ন কলেজে পরিকাঠামোর অভাব ছিল। এখন তা নেই। কলেজ বেড়েছে। আসন সংখ্যা বেড়েছে। শিক্ষকদের সংখ্যা বেড়েছে। কিন্তু এখনও নির্দিষ্ট কিছু কলেজে বাড়ির ছেলেমেয়েদের ভরতি করানোর ঝোঁক রয়েছে। এই মানসিকতা বদলাতে হবে। নির্দিষ্ট কলেজে (College) আসন ভরে গেলে অন্য কলেজে ভরতি হতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button