ব্যাবসা শুরু করতে চান? এই জনপ্রিয় ব্যাঙ্কগুলিতে পাওয়া যায় সবচেয়ে কম সুদে লোন!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- করতে চান একটা ছোটখাটো ব্যবসা? বা অন্য কোন কিছু? কিন্তু পকেটে নেই মোটা রকম পুঁজি? সেক্ষেত্রে আপনাকে হাঁটতে হবে ব্যাংক লোনের পথে। বর্তমান যুগে বিভিন্ন ব্যাংক বলাবাহুল্য সকল ব্যাংক পার্সোনাল লোন দিয়ে থাকে এডুকেশন লোন , গোল্ড লোন, কার লোন এর পাশাপাশি পার্সোনাল লোন হয়ে থাকে।

তবে ব্যাংকের বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছে , যতটা সম্ভব পার্সোনাল লোন থেকে এড়িয়ে চলাই ভালো । কারণ এতে সুদের হার অত্যন্ত বেশি থাকে অর্থাৎ আপনাকে বেশি পরিমাণ সুদ দিতে হবে । কিন্তু এরকম ভাবনা চিন্তা খুব কম জনই ভাবে এবং তাড়াহুড়ো করে নিয়ে ফেলে একটি পার্সোনাল লোন ।

পরে তাকে দিন গুণতে হয় বা চিন্তায় দিন কাটাতে হয় সুদের কথা ভেবে । এরম যেন আপনার সাথে না ঘটে তাই বেশ কিছু তথ্য আপনাদেরকে দিতে চলেছি যা দেখলে আপনারা পরিষ্কার অনুধাবন করতে পারবেন যে কোন ব্যাংক সবথেকে কম সুদে পার্সোনাল লোন দেয় আসুন দেখে নেওয়া যাক।

একটি সমীক্ষা থেকে পাওয়া এই তথ্য অনুসারে নিম্নলিখিত ব্যাংক গুলো সুদের তালিকা দেওয়া হল
ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক                 ৮.৯০ শতাংশ           ১০,৩৫৫

পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক      ৮.৯৫ শতাংশ               ১০,৩৬৭

ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক                  ৯.২০ শতাংশ                ১০,৪২৮
স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া    ৯.৬০ শতাংশ               ১০,৫২৫

ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্র          ৯.৭০ শতাংশ                ১০,৫৫০

সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক                   ৯.৮৫ শতাংশ               ১০,৫৮৭

ইউকো ব্যাঙ্ক                   ১০.০৫ শতাংশ              ১০,৬৩৬

এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক         ১০.৭৫ শতাংশ              ১০, ৮০৯

উপরের তথ্যগুলো ৫ লক্ষ টাকার লোন এর উপর ভিত্তি করে দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ উপরে লক্ষণ গুলো একটু নজর রাখলেই বুঝতে পারবেন সবথেকে কম সুদে লোন দেন ইউনিয়ন ব্যাংক । যার সুদের পরিমাণ ৮.৯০ এবং তার পরে রয়েছে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক সুদের পরিমাণ ৮.৯৬ শতাংশ ।

উল্লেখ্য, ১৮ সেপ্টেম্বর সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কগুলির ওয়েবসাইট থেকে তথ্য সংগ্রহ তৈরি করা হয়েছে উপরোক্ত তথ্যগুলি। এ ক্ষেত্রে পাঁচ বছরের মেয়াদে পাঁচ লক্ষ টাকার পার্সোনাল লোনের উপর ভিত্তি করেই সুদের হার ও ইএমআই হিসেব করা হয়েছে। ইএমআই হিসেব করার ক্ষেত্রে লোন প্রসেসিং ও অন্যান্য চার্জগুলিকে ধরা হয়নি।

সে ক্ষেত্রে ব্যাঙ্কের নিজস্ব শর্ত ও নিয়মের ভিত্তিতে এই সুদের হার ও ইএমআই-তে অল্পবিস্তর পরিবর্তন আসতে পারে।তাহলে আর দেরি কিসের? আজই যোগাযোগ করুন আপনার নিকটবর্তী সবথেকে কম সুদ প্রদানকারী ব্যাংকের সাথে এবং নিয়ে ফেলুন পার্সোনাল লোন। খুলে ফেলুন মনের মতন একটি ব্যবসা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button