ফ্রিজে রাখা কাঁচা মাছের স্বাদ দীর্ঘদিন টাটকা রাখতে চান? জেনে নিন কিছু ঘরোয়া টিপস

কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালি। তা এই মাছ মাঝে মাঝেই আমাদের ফাঁপরে ফেলে। বিশেষত এই লকডাউনে রোজ বাজারে যাওয়া যাবে না, যেদিন গেলেন একেকদিন নিজের পছন্দের মাছ পেলেন তো অন্যদিন পেলেননা! কি যে মুশকিল। তাহলে একদিন কিনে বাকি দিন ফ্রেশ মাছ কীকরে খাওয়া যায় চলুন দেখি।

১. ফ্রিজে রাখা মাছ অনেক দিন মাছ টাটকা থাকে না।মাছ সাধারণত জলের অনেক নীচে চলাফেরা করে, সেখানকার উষ্ণতা অনেক কম তাই মাছকে সেই তাপমাত্রায় রাখুন মাছ ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে একটি ফুটো করা পাত্রে রাখুন খেয়াল রাখবেন যাতে স্ট্যান্ড থাকে। একটি বড় পাত্রে বরফ কুচি নিয়ে তার উপর রেখে দিন মাছের পাত্রটি। মাছের গায়ে যেন বরফ লাগে না যেন। মাছের পাত্রটির উপর অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে সিল করে দিন। মাছ বেশ কয়েক দিন ভালো থাকবে। অনলাইনে থেকে স্টিলের বাস্কেট অর্ডার করতে পারবেন। যা অনেকটা এভাবে কাজ করে।

২. বাজারে ফ্রিজিং ব্যাগ পাওয়া যায় যা ব্যবহার করতে পারেন মাছ অনেক দিন ভালো রাখার জন্য।
মাছ ভালো করে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিয়ে শুকিয়ে নিন পাখার নিচে। তারপর ফ্রিজিং ব্যাগে ঢুকিয়ে মুখ আটকে দিন।এবার ডিপ ফ্রিজে রাখুন।

৩. অন্য খাবারের থেকে কাঁচা মাছ আলাদা করে ফ্রিজে রাখতে হবে। এয়ার টাইট কোনও পাত্রে রাখলে খুব ভালো, যাতে মাছ কোনও ভাবেই হাওয়ার সংস্পর্শে না আসে।
কারণ বাইরের হাওয়া মাছ পচিয়ে দেয়।

৪. নুন আর লেবু খুব সহজেই যে কোনও জিনিস অনেক দিন ধরে ভালো রাখতে পারে। মাছ ও তার ব্যতিক্রম নয়।কাঁচা মাছ ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন তারপর ভালো করে নুন আর লেবুর রস মাখিয়ে খানিক ক্ষণ রেখে দিন। তারপর ফ্রিজে রাখলে অনেক দিন মাছ টাটকা থাকে।

৫. মাছ রান্নার আগে হলুদ মাখালে কেবল মাছের আঁশটে গন্ধ মরে যায় তাই নয় হলুদ খুব ভালো ভাবে সংরক্ষণের কাজ করে ।মাছ ধুয়ে শুকিয়ে বেশ ভালো করে হলুদ মাখিয়ে নিন, যখন হলুদ শুকিয়ে মাছের গায়ে লেগে যাবে তখন ফ্রিজে রেখে দিন।এবার আর নুন দিতে হবে না। মাছ রান্না করার সময় মাছ বের করে ধুয়ে নিলেই অতিরিক্ত হলুদের গন্ধ থাকবে না।

৬. ফ্রিজ আবিষ্কার হওয়ার আগে গোলমরিচ খুব বেশি ব্যবহার করা হত যে কোনও কিছু কাঁচা অবস্থায় ভালো রাখার জন্য । মাছ ভালো রাখতে মাছে বেশি করে গোলমরিচ গুঁড়ো মাখিয়ে রাখতে পারেন। এতে আঁশটে গন্ধও থাকবে না।

এভাবেই আপনি নিজেই বাড়িতে অনেক মাছ রেখে অনেক দিন ধরে সেই মাছের স্বাদ নিতে পারবেন, বাজারে প্রিজার্ভ করা মাছ না কিনলেও চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button