বীরেন্দ্র কৃষ্ণ ভদ্রের খুদে নাতির দুর্দান্ত কায়দায় ও দারুন ভঙ্গিতে ও কণ্ঠে অসাধারণ মহালয়া পাঠ, সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারের ঝড়, রইলো ভিডিও

বাঙালিরা নিজেদের অস্তিত্ব বজায় রাখার জন্য বহু কাজে দক্ষ। এমনই কিছু বছর আগে পর্যন্ত যেসব প্রতিভা কিছু মানুষের মধ্যে বিদ্যমান ছিল তা যথেষ্ট পরিমাণে অনাচারের অভাবে কিংবা অনাদরে অচিরেই হারিয়ে গেছে। হয়তো সেই সব ব্যক্তিদের মর্যাদা দিলে বর্তমানে তারা হয়ত অনেকের কাছে কদর পেতেন।

হারিয়ে যাওয়া প্রতিভার সংখ্যা অগুনতি।এই হারিয়ে যাওয়া প্রতিবার সাথে সাথে আমরা অচিরেই হারিয়ে ফেলি বহু গুণী শিল্পীকে। হয়তো যারা একটা সুযোগের অভাব এই চিরকাল অবহেলিত হয়ে পড়লেন কিংবা যারা প্রকৃত কিছু চর্চার অভাবে নিজেদের সংসার কে দুর্দশার মধ্য দিয়ে কাটাতে হচ্ছে।কিন্তু বর্তমানে আমরা প্রতিবাদ গুলোকে কিছুটা হলেও মানব জাতির সামনে আনার সুযোগ পেয়েছি এই সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে।

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বহু মানুষের বহু প্রতিভার সারাবিশ্ব দুনিয়ার দরবারে পৌঁছে যায় এমন বহু ঘটনা আমরা দেখেছি যেগুলো অতি সহজেই ভাইরাল হয়েছে এবং সেই মানুষটির প্রাধান্য বৃদ্ধি পেয়েছে।সম্প্রতি কিছুদিন আগে কার ঘটনা রানু মন্ডল নামে একজন ভিক্ষুক যার গানে গলার মধুর কন্ঠের জন্য তিনি বিখ্যাত হয়ে উঠেছিলেন।

সম্প্রতি এই লুক্কায়িত প্রতিভার বহিঃপ্রকাশ একটি ভিডিও। এই লুক্কায়িত প্রতিভার বংশধর কিংবা পুরুষ সকলেই আমাদের কাছে অতি পরিচিত। মহালয়ার অর্থাৎ পিতৃ পক্ষের অবসান এবং দেবীপক্ষের সূচনা। এই হল এর আদি লগ্ন থেকেই একজন বাঙ্গালীর নাম সকলের মুখে মুখে অতি পরিচিত। যার চন্ডী পাঠের মাধ্যমে কিংবা সেই অসাধারণ সুরের অধিকারী সেই ব্যক্তিটির কন্ঠে সকল মানুষের ঘুম ভাঙ্গে এবং পুজোর সূচনা হয়।

মহালয়া মানেই বীরেন্দ্র কৃষ্ণ ভদ্রের চন্ডী পাঠের মাধ্যমে সকালের আগমন।চণ্ডীপাঠ শুনতে সকল বাঙালিরা এটি পছন্দ করেন।বাঙালিরা বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের নামের সাথে এতটাই ওতপ্রোতভাবে জড়িত যে এক বছর মহানায়ক উত্তম কুমার কে দিয়ে এই মহালো এর আগমনী বার্তা রেকর্ডিং করালে সমাজে আলোড়ন পড়ে যায়।

সবকিছুকেই এক হাতে নিয়ে এবার হাজির বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের নাতি।বলা হয় প্রতিভা যেন এক মানুষের থেকে তাদের বংশে র-ক্তে র-ক্তে ছড়িয়ে পড়ে হয়তো সেই এক রত্তি খুদে শিশুটি তারই প্রকৃত উদাহরণ।দাদুর মত অতটা ও সাবলীল না হলেও যথেষ্ট ভাল চন্ডী পাঠ করে ওই খুটি শিশুটি আর এই ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথে সারা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে অস্থির কিংবা ঝড় বয়ে যায়।

https://youtu.be/24HiwxPjY-E

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button