আজ গণেশ চতুর্থী, ভক্তিভরে আজ এই সময় করুন গণেশের আরাধনা, গৃহে আসবে সুখ শান্তি!

গণেশ চতুর্থী হল পশ্চিম ভারত এবং মধ্য ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় উৎসব কিন্তু বর্তমানে সারা ভারতজুড়ে গণেশ চতুর্থী পালিত হয়। সিদ্ধিদাতা গণেশের পূজা-অর্চনা সকলেই ভক্তিভরে পালন করেন। ভক্তগণ বিশ্বাস করেন প্রাণভরে মন থেকে ভগবান শ্রী গণেশ কে ডাকলে সমস্ত বি-প-দ থেকে উদ্ধার পাওয়া যায়। ব্যবসা-বাণিজ্য সহ যেকোন কাজকর্মে অভূতপূর্ব উন্নতি হয় শ্রী গণেশের আশীর্বাদে। ‌

তাই চতুর্থীতে গণেশ পুজো করার আগে একবার জেনে নিন কিভাবে আপনি গণেশ পুজো করবেন। প্রভু গণেশ ভক্তিভরে অল্প প্রজাতি সন্তুষ্ট হন। ভক্তদের তিনি প্রাণভরে আশীর্বাদ করেন। প্রভু গণেশের পূজার মন্ত্র হলো- ‘ওঁ শ্রী গণেশায় নমঃ’, ‘ওঁ গাং গণেশায় নমঃ ওঁ শ্রী গণেশায় নমঃ,’ এছাড়াও একটি জনপ্রিয় গণেশ বন্দনা মন্ত্র হল – “একদন্তং মহাকায়ং লম্বোদরং গজাননম বিঘ্নবিনাশং দেবং হেরন্বং পরমাম্যহম।”

হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, চাঁদ গণেশ চতুর্থী উদ্‌যাপন করেছিলেন। চাঁদ তাঁর সৌন্দর্যে খুবই গর্বিত ছিলেন। গণেশের আকৃতি দেখে তিনি নাকি খুব ঠাট্টা করেছিলেন। প্রভু গণেশ তখন তাঁকে অভি-শাপ দিলে চাঁদ গণেশের কাছে অনুশোচনা করে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছিলেন। গণেশ তাঁকে শাপমুক্ত করার পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন যে, পূর্ণ ভক্তি এবং শ্রদ্ধার সাথে তিনি যদি চতুর্থীতে উপবাস করেন তাহলে তিনি শাপমুক্ত হবেন। তারপরেই চাঁদ প্রথম গণেশ চতুর্থী পালন করেছিলেন।

গণেশ পূজা করতে গেলে ভোর বেলা উঠে স্নানের পর , সূর্য দেবের উদ্দেশ্যে জল উৎসর্গ করতে হয়। গণেশের মূর্তির পা স্পর্শ করে অভিষেক করে তারপর উপাসনা করুন। প্রভু গণেশকে ফুল এবং দূর্বাঘাস অর্পণ করুন। প্রভু গণেশের অর্চনায় ৫ সংখ্যাটির খুবই গুরুত্ব রয়েছে। তাই গুণে গুণে ৫ টি দূর্বাঘাস দিয়ে পূজা করুন। জবা ফুল গণেশের খুবই প্রিয়। তাই জবা ফুল দিয়ে গণেশকে সাজান।

গণেশ চতুর্থীর দিন পাঁচটি ব্রাম্ভনকে ফল, মিষ্টি এবং পৈতা দান করলে বিশেষ ফল মেলে। চতুর্থীতে চাঁদ দেখার আগে খেতে নেই। এর উপবাস রাখলে দিনের বেলায় একদমই ঘুমানো উচিৎ নয়। চাঁদ দর্শন করে তারপরে নিরামিষ খাবার খেতে হয়। এদিনে কড়াভাবে ব্রম্ভচর্য পালন করলে বিশেষ ফললাভ হয়।
আজ সকাল ১১:০৬ এ পড়েছে গণেশ চতুর্থী। পঞ্জিকা মতে গণেশ চতুর্থীর শুভ সময় থাকবে বেলা ১:৪২ পর্যন্ত। রাত ১১:০২ এ উৎসবের তিথি শুরু হচ্ছে এবং ২২ তারিখ সন্ধ্যা ৭:৫৭ তে উৎসবের তিথি শেষ হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button