মাঝ আকাশে বিমানের বাথরুমে সন্তানের জন্ম দিলেন মহিলা, আজীবন বিমান সফর ফ্রি, জানাল এয়ার ইন্ডিগো!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যেতে বা দেশের বাইরে কোথাও যেতে গেলে আমাদের বিমানের সাহায্য নিতে হয়। অর্থাৎ বিমানের সাহায্যে আমরা দেশ এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে থাকি। কিন্তু কখনও কোনও অন্তঃসত্ত্বা মহিলা বিমান যাতায়াত করতে চান না। কারণ যে কোন মুহূর্তে উঠতে পারে প্রসব যন্ত্রণা। সে ক্ষেত্রে একটি মাঝ আকাশে থাকা বিমানে কিভাবে মিলবে পরিষেবা?

সেই ভয়ে অনেকে অ’ন্তঃস’ত্ত্বা অবস্থায় বিমানে যেতে চান না । কিন্তু এরকমই একটি ঘটনা সামনে আসে যেখানে দেখা যায় যে এক অ’ন্তঃস’ত্ত্বা মহিলা বিমান যাত্রা করেন এবং তার পরেই ঘটল আজব ঘটনা ।নতুন প্রাণের স’ঞ্চার বা নতুন প্রাণ পৃথিবীতে এলে তা রীতিমতো আনন্দেই হয়। আমি এই কারণেই বলছি কারন ঐ মহিলাটি সঙ্গে যে ঘটনা ঘটলো তা রীতিমত অ’বাক করে দিয়েছে ওই বিমানে থাকা সমস্ত যাত্রীদের তার সাথে সাথে নেট দুনিয়ায় জনতাদের ।

সম্প্রতি এক মহিলার ব্যাঙ্গালোর যাওয়ার জন্য বুধবার দিল্লি থেকে ব্যাঙ্গালোর এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় ইন্ডিগোর ৬ ই ১১২ বিমান এ ।কিন্তু যখন বিমানটি মাঝ আকাশে তখন তার ওঠে প্র’সব য’ন্ত্রণা । এমতাবস্থায় তিনি কী করবেন তা বুঝে উঠতে পারছেন না । তার সাথে সাথে উ’দ্বিগ্ন হয়ে পড়ে বিমানের বাকি সব যাত্রীরা । তবে তাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে বিমানকর্মীরা।

আবেগ এবং উত্তেজনা ভরা ঐ বিমানের ক্যাপ্টেন সঞ্জয় শর্মা জানিয়েছেন যে সৌভাগ্যবশত সেই বিমানের একটি স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ এবং একজন একজন প্লাস্টিক সার্জার উপস্থিত ছিলেন । যার ফলে সে যাত্রায় র’ক্ষা পেয়ে যান সেই অন্তঃসত্ত্বা মহিলা টি । জানা গিয়েছে বিমানের বাথরুমের পাশে একটি টেম্পোরারি লেবার রুম তৈরি করেন বিমান কর্মীরা । সেখানে জন্ম হয় ওই নবজাতকের।

যদিও এই ঘটনাটি ব্যাঙ্গালোরে বিমান অবতরণের আগে বিমানবন্দরের সকলে জেনে গিয়েছিল । তাই নতুন সদ্যোজাতকে আপ্যায়ন করার জন্য তৈরি ছিলেন তারা । করতালি ও ক্যামেরার ফ্লাশ এ মাটিতে পা রাখে ওই শিশুটি । এর পাশাপাশি মিলেছে দারুন উপহার তবে সব থেকে বড় উপহার দিয়েছে ওই বিমান কোম্পানি ইন্ডিগো। বিমান কোম্পানি জানিয়েছেন যে ওই সদ্যজাত আজীবন বিমান সফর সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ।

অর্থাৎ ওই সদ্যোজাত বড় হয়ে যতদিন যেখানে ইচ্ছা সেখানে বিমানে করে যেতে পারেন তার জন্য লাগবে না কোন টাকা পয়সা ।ব্যাঙ্গালোরে বিমানটি অবতরণ করার পর মা এবং সন্তানকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । স্থানীয় সূত্রে খবর মা এবং সন্তান ভালো আছে। সম্প্রতি এই ধরনের একটি খবর সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে যা রীতিমতো অবাক করছে নেটিজেনদের ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button