২০২২ সালের আগেই সারা দেশে চালু হবে নতুন জাতীয় শিক্ষানীতি, ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর!

বর্তমানে আমরা বিগত কিছু বছর ধরে যে শিক্ষানীতিতে অভ্যস্ত ছিলাম এই বছরই সম্প্রতি ঘোষণা করা হয় পুরনো শিক্ষানীতি কিংবা শিক্ষাব্যবস্থাকে আমূল পাল্টে নতুন শিক্ষাব্যবস্থা চালু হবে। মনে করা হচ্ছে নতুন এক যুগের বীজ বপন করবে এই নতুন শিক্ষানীতি।বিংশ শতাব্দীর শেষ একবিংশ শতাব্দীর সূচনাতেই এই নতুন শিক্ষানীতি সারা বিশ্বকে প্রভাবিত করবে বলে সওয়াল তুললেন দেশের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি।

সম্প্রতি এটি প্রেস কনফারেন্সে NEP 2020 একটি কনক্লেভে মোদি নতুন শিক্ষানীতি নিয়ে মন্তব্য প্রকাশ করেন।মোদি বলেন মার্কশীট কখন এই কোন একটি ছাত্রের শিক্ষা কিংবা মূল্যায়নকে তুলে ধরতে পারে না। অর্থাৎ এই নিয়ে একটি জনৈক মন্তব্য”A single piece of paper cannot decide your future”সোশ্যাল মিডিয়ায় মন্তব্য অনেক বার করতে দেখা গেছে এবং ভাইরাল হয়েছে এবং তাকে নিয়ে তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।তিনি বলেন মার্সিটি কোন একটি ছাত্র কিংবা শিক্ষা ব্যবস্থা একটি বড় বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নতুন শিক্ষা ব্যবস্থায় মার্কশিট কে বাদ দিয়ে সর্বস্তরে যাতে সম্পূর্ণ বিকাশ হয় একটি শিশু কিংবা একটি ছাত্রের তার উপরে জোর দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। শিক্ষা শুধু ক্লাসরুমে বন্ধ থাকার জন্য নয় এই শিক্ষা পুঁথিগত নাকুরি শিক্ষাকে সম্পূর্ণভাবে জানার চেষ্টা বোঝার চেষ্টা এবং মত প্রকাশ যাতে করা যায় কিংবা কোনো একটি ছাত্র তা সম্পূর্ন শিক্ষাটা যেমন ক্লাস রুম থেকে না পেয়ে সর্ব দিক থেকে পায় সেই দিকে তিনি ঘোষণা করেন।

মোদি জানান ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত প্রত্যেকটি শিশুকে তার মাতৃভাষায় শিক্ষাদান করতে হবে । প্রসঙ্গত এর নতুন শিক্ষানীতি কে সম্পূর্ণ ধিক্কার জানায় পশ্চিমবঙ্গ সরকার। রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে এই ধরনের নতুন শিক্ষানীতি আরোপ করা হচ্ছে না, রাজ্য এ প্রসঙ্গে ধীরে চলো নীতি অবলম্বন করবে বলে জানা যায়।

রাজ্যে এহেন নতুন শিক্ষানীতি চালু হবে কিনা সে ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি তবে দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে যদি সম্ভব হয় তবে চালু করা যেতে পারে।কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী জানান 2022 সালের মধ্যেই সম্পন্ন সারাদেশে এই নতুন শিক্ষানীতি চালু হবে এবং তার জন্য সকল মানুষকে জোটবদ্ধ হয়ে একসাথে কাজ করতে হবে।মনে করা হয় এই নতুন শিক্ষানীতি যেমন একদিকে ভালো কিন্তু কিছু তার খারাপ গুণ রয়েছে সম্প্রতি শিক্ষকমন্ডলী এবং কিছু অভিভাবকরা এই নতুন শিক্ষানীতি কেউ সমালোচনা করেছেন মনে করা হচ্ছে ছাত্র ছাত্রীরা এই নতুন শিক্ষানীতিতে মেয়েদেরকে খাপ খাইয়ে নিতে অনেকটাই কষ্ট করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button