জালে আটকা পরে গেছে বানর, মাটি খুঁড়ে সেই বানরকে বাঁচালেন কুকুর, ভাইরাল ভিডিও দেখে অবাক নেটিজেনরা, ভাইরাল ভিডিও

নানান বৈচিত্রের সমাহারে সৃষ্টি হয়েছে এই প্রকৃতি। সৃষ্টিকর্তা দুই হাতে ঢেলে সাজিয়েছেন প্রকৃতিকে। জীবজগতের বৈচিত্রের এক অফুরন্ত সম্ভার রয়েছে পৃথিবীর বুকে। বর্তমানে নেটদুনিয়ার দৌলতে জীবজগতের সমস্ত কিছু আমাদের চোখের সামনে উপস্থিত হচ্ছে। মোবাইল থেকে শুরু করে কম্পিউটার, টিভি সবেতেই আমরা প্রতিনিয়ত লক্ষ্য করতে পারছি জীবজগতের নানান বিস্ময়কর ঝ-ল-ক।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রাণীবিষয়ক চ্যানেল গুলি বা বিজ্ঞানভিত্তিক চ্যানেলগুলি প্রতিনিয়ত জানান দিচ্ছে আমাদের অনেক কিছু অজানা, অদেখা বিষয় গুলির। রুক্ষ মরুভূমি থেকে শুরু করে গভীর মহাসাগর, দূর্ভেদ্য জঙ্গল সবকিছুই আমাদের হাতের নাগালে চলে এসেছে। অনেক কিছুই আমরা জানতে শিখতে পারছি জীবজগৎ সম্পর্কে। জ্ঞানের ভান্ডার আমাদের বৃদ্ধি হচ্ছে।

পশুদের মধ্যে দেখা যায় একে অপরকে সাহায্য করার একে অপরের পাশে থাকার মানবিক নিদর্শন। পশুরাও সামাজিক হয়, তাদের মধ্যেও অনুভূতি রয়েছে। ঠিক এমনই একটি ভিডিও এসে উপস্থিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা দেখে ধন্য ধন্য করেছেন তামাম নেটিজেনরা। এমনিতেই আমরা কুকুরকে জানি সবথেকে বিশ্বস্ত এবং প্রভুভক্ত জীব। সোশ্যাল মিডিয়ায় এরকম নিদর্শন আমরা বারবার দেখেছি যে মানুষ থেকে শুরু করে অন্যান্য পশুপাখিদের বি-প-দ থেকে উদ্ধার করেছে।

সোশ্যাল মিডিয়া একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে একটি খাঁচায় আটকে রয়েছে একটি বাঁদর। খাঁচার পাশেই রয়েছে একটি কুকুর। কুকুরটি চাইছে বাঁদর টিকে খাঁচা মুক্ত করতে। কিন্তু কিছুতেই পারছে না। অবশেষে কুকুরটি একটি দারুন বুদ্ধি ধরল। খাঁচার পাশেই সে মাটি খুঁড়তে আরম্ভ করলো। এক সময় মাটি খুঁ-ড়ে এসে খাঁচার ভিতর পর্যন্ত একটি গর্ত বানিয়ে দিল। আর বাঁদরটিও সেই গর্ত দিয়ে অনায়াসে খাঁচার বাইরে বেরিয়ে গেল। যদিও কুকুরটি এবং বাঁদরটি কারো পোষা।

এবং তাদের মালিক নিজেই এই ভিডিওটি বানিয়েছেন। এর মাধ্যমে দেখানো হয়েছে কুকুরটির বুদ্ধিমত্তা। এবং সেই সাথে এটাও দেখা গিয়েছে যে এক অবলা প্রাণী কিভাবে অন্য প্রাণীর উপকারে আসতে পারে। অনুভূতি মানুষ ছাড়াও পশুপাখিদের জগতেও বর্তমান। অপরকে সাহায্য করার এই মহান চিন্তাভাবনা তাদের মধ্যেও রয়েছে। এই ভিডিওটি তার প্রত্যক্ষ প্রমাণ।
পশুপ্রেমী রাও এই ভিডিওটি দেখে যথেষ্ট আনন্দ পেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button