“নির্ভয়ার ধর্ষ’ক’দের আইনজীবীই মামলা লড়বেন হাথরাসের অভিযুক্তদের হয়ে”, সোশ্যাল মিডিয়ায় কঠোর সমালোচনার মুখে এই আইনজীবী!

নিজস্ব সংবাদদাতা: উত্তরপ্রদেশের হাথরাসের গণধ-র্ষ-ণ এবং খু-নে-র ঘটনায় অ-ভিযুক্ত-দের পক্ষে মামলা লড়বেন আইনজীবী অজয় প্রকাশ সিং। এই খবর প্রকাশ পাওয়ার পর আবার অজয় প্রকাশ সিংএর বি-রু-দ্ধে সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে।

অজয় প্রকাশ সিং ২০১২ সালে দিল্লির নির্ভয়া গণধ-র্ষ-ণ এবং মৃ-ত্যু-র ঘটনায় অভিযুক্তদের পক্ষে সওয়াল জবাব করেছিলেন। তবে অনেক চেষ্টার পরেও ধ-র্ষ-কদে-র বাঁচাতে পারেননি। ২০২০ সালে ২০ মার্চ ফাঁ-সি-র শা- কার্যকর হয় ধ-র্ষক-দে-র।

অজয় প্রকাশ সিংকে নিয়োগ করেছে অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা নামের একটি উচ্চবর্ণদের সংগঠন, যার প্রধান হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজা মানবেন্দ্র সিং। ওই সংগঠনের পক্ষে একটি প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়,”অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা এই মামলায় আইনজীবীর ফি দেওয়ার জন্য চাঁদা তুলে অনেক টাকা জোগাড় করেছে।”

ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে আরো বলা হয় যে,”হাথরাস কাণ্ডে দলিত সম্প্রদায়কে উচ্চবর্ণের বি-রু-দ্ধে মিথ্যে কথা বলার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে”।

হাথরাসের ঘটনায় সেখানকার উচ্চবর্ণরা সাংগঠনিক এবং ব্যক্তিগত উভয় স্তরেই অভিযুক্তদের সাপোর্ট করে চলেছে। কয়েকদিন আগেই নি-র্যাতি-তার বাড়ির পাশে ৫০০ জনের এক সমাবেশ হয় বিজেপি নেতার বাড়িতে। সেখানে অভিযুক্তদের সমর্থন করে স্লোগানবাজি করা হয়। এই সমাবেশের খবর ছড়িয়ে পড়তেই যোগী প্রশাসনের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

এমনকি খাপ পঞ্চায়েতের মতন এক সভা ডাকা হয়। সেখানে অভিযুক্তদের নি-র্দো-ষ ঘোষণা করে মাতব্বররা। সেখানকার প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক রাজবীর সিং পেহলওয়ানের বাড়ির সামনে ধর্না শুরু করে দেওয়া হয়। সেখানে তারা দাবি জানাতে থাকে যে ওই অভিযুক্তরা নির্দোষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button