17 অক্টোবর থেকেই ভারতে চলবে হাইপ্রোফাইল ট্রেন, কীকী থাকবে এই ট্রেনে? কোথা থেকে চলবে এই ট্রেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন:-করোনা জেরে শুরু হয়েছিল দেশজুড়ে লকডাউন। এবং সেই লকডাউন এর জন্য রীতিমতো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বিভিন্ন স্কুল কলেজ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বাস-ট্রেন বিমান। তবে ইতিমধ্যে দেশজুড়ে আনলক ৫ পর্ব শুরু হয়ে গেছে। এই আনলক ৫ পর্বের বেশ কিছু জায়গায় বেশকিছু রুটে চলছে ট্রেন ।

যদিও এর আগে অর্থাৎ আনলক ৪ পড়বে কলকাতায় মেট্রো পরিষেবা চালু করে দেওয়া হয়েছিল। বিভিন্ন সতর্ক বার্তা নিয়ে চালু করা হয় এই মেট্রো পরিষেবা । কিন্তু এবার আগামী অক্টোবর মাস থেকে চলতে শুরু করবে দুটি বিলাসবহুল ট্রেন ।

ভারতীয় রেলের ইতিহাসে নজির তেজস এক্সপ্রেস। প্রাথমিক ভাবে তিন বছরের জন্য দুটি রুটে এই ট্রেন পরিচালনার ভার তুলে দেওয়া হয়েছে আইআরসিটিসির হাতে। রেলে কর্পোরেটের ছোঁয়া আনতেই এই উদ্যোগ। বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর প্রথম থেকে অভিযোগ রেলে বেসরকারিকরণের প্রথম ধাপ আইআরসিটিকে নিজস্ব উদ্যোগে তেজস চালানোর অনুমতি প্রদান। ১৫০ রুটে বেসরকারি উদ্যোগের ট্রেন চলাতে আগ্রহী রেল।

লকডাউন এর জেরে বন্ধ জেরে বন্ধ বন্ধ হয়ে যায় তেজস এর মুম্বাই আমেদাবাদ এবং লখনও দিল্লি এই দুটি রুট এর ট্রেন পরিষেবা । তবে আগামী ১৭ ই অক্টোবর থেকে ফের ট্রেন চালাতে উদ্যোগ নিয়েছেন আইআরসিটিসির । এর পাশাপাশি যাত্রীদেরকে নির্দিষ্ট নিয়ম এবং সতর্কতা মেনে চলতে হবে । মেট্রো মতনই তিনটি সিটের মধ্যে মাঝে সিটটিকে রাখতে হবে ফাঁকা । প্লাটফর্ম এ ঢোকার আগে প্রতিটা যাত্রীকে করতে হবে থার্মাল স্ক্রীনিং।

তার সাথে সাথে ট্রেনে ওঠার সময় হ্যান্ড স্যানিটাইজার গ্লাভস মাস্ক সহ একটি কিট প্রদান করবেন রেল । তার পাশাপাশি নির্দিষ্ট সময় মাফিক পরিষ্কার করা হবে করা হবে ট্রেনের কামরা গুলিকেও। এমনটা সর্তকতা জারি করেছে দলের পক্ষ থেকে পক্ষ থেকে।

এর পাশাপাশি লাগু হতে চলেছে বিদেশি টেকনিক । ওই দুটি রুটের চাহিদা সর্বাধিক। এবং টিকিটের দাম আগের মতন থাকবে। যদি কোনো কারণে ট্রেন দেরিতে পৌঁছয় তাহলে ফিরিয়ে দেয়া হবে অর্থ। এমনটাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button