বাগান বাড়িতে মা’দ’ক নেশায় মত্ত সুশান্ত ও সারা আলি খান, গো’পন ভিডিও ভাইরাল হতেই উ’ত্তা’ল সোশ‍্যাল মিডিয়া! ভাইরাল ভিডিও

ধূমপান এমন একটি বিষয় কিংবা অভ্যাস মিশা যা মানুষকে সাময়িক স্বস্তি দিলেও,বেশিরভাগ সময় ধূমপানের ফলে মানুষের স্বাস্থ্যের অবনতি হয়। যার ফলে বিভিন্ন ধরনের রোগ মানব দেহে বাসা বাঁধে যার অন্যতম হলো ক্যান্সার। তাই বিভিন্ন সামাজিক প্রচারের মাধ্যমে প্রচার করা হয়ে থাকে ধূমপান অত্যন্ত ক্ষতিকারক।

কর্নার জেরে যখন সারাবিশ্ব জর্জরিত তারই মধ্যে বহু মানুষকে আমরা অকালেই নিজেদের থেকে হারিয়েছি। বিশিষ্ট অভিনেতা মেধাবী ছাত্র সুশান্ত সিং রাজপুত গেল গোটা বলিউড পাড়া। একদিকে যেমন লড়াকু অভিনেতা ছিলেন তেমনি অন্যদিকে ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী।সূত্র মারফত জানা যায় তিনি একমাত্র প্রথম বাঙালি যিনি নিজের নামে জমি কিনেছিলেন।

এই মৃ-ত্যু অনেকের কাছে অস্বাভাবিক বলে মনে হয়েছে।মুম্বাই পুলিশের ত-দ-ন্তে অধীনে থাকা এই ঘটনাটি ইতিমধ্যেই নারকটিকস কন্ত্রল বিরোধী কর্তাদের হাতে এবং সিআইডি হাতে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।দীর্ঘ জে-রা এবং অন্যান্য সূত্র মারফত খবরে জানা যায় তার প্রাক্তন প্রেমিকা আজিয়া চক্রবর্তীর সাথে এই মৃ-ত্যু ঘটনা মামলায় যুক্ত রয়েছে। শুধু তাই নয় চক্রবর্তীর সাথে তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী ওই ঘটনার সাথে জড়িত।

অভিনেতা সাইফ আলী খানের এক কন্যা সারা আলি খান এর সাথে এটি দুষ্টু মিষ্টি প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। কিন্তু বলিউড মাফিয়া এবং নেপোটিজম ইত্যাদির কারণে সেই সম্পর্কটি পরিণত হয়নি।সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল করা হয়েছে যেটি দেখে গোটা নেটদুনিয়া বিভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হচ্ছেন।সুসান সিং রাজপুতের মৃ-ত্যু কাণ্ডের সঙ্গে জড়িত রিয়া চক্রবর্তী কে জেলার মাধ্যমে জানা যায় 25 জন বলিউড তারকা মা-দ-কচ-ক্রের সঙ্গে জড়িত।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে সারা আলি খান এবং সুসান সিং রাজপুত তাদের নিজস্ব বাগান বাড়িতে বসে ধূমপান করছেন। জানা যায় ভিডিওটি তার নিজস্ব বাগান বারি পাবনার নামক একটি স্থানে শুট করা হয়েছে।সম্ভবত কেদারনাথ ছবি প্রমোশন এই ভিডিওটি কিংবা দুজনে দুজনকে একসাথে লক্ষ্য করা গেছে ।

বাগানে কর্মরত কোন নিরাপত্তা রক্ষী মোবাইলে ভিডিওটি শুট করা হয়েছে বলে জানা যায়।যতদিন ক্রমশ এগোচ্ছে মৃ-ত্যু মামলা সাথে জড়িত অন্যান্য বিষয়গুলির অত ঘনীভূত হচ্ছে। একটু হলেও কিছু মানুষের কাছে এটুকুই আনন্দ বার্তা যে মিথ্যা মামলায় জড়িত দোষীদের শা-স্তি অনিবার্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button