বিজেপির প্রভাবশালী নেতার সাথে যৌ’ন অশ্লীল ছবি আদান প্রদান সহ যৌন চ্যাট, ফাঁস অশ্লীন ছবি সহ চ্যাট!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-একুশের ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই বাড়ছে রাজনৈতিক মহলে চাপানউতোর। কটাক্ষের আসনে বসছে একের পর এক রাজনৈতিক দলগুলি। কখনো তৃণমূল, বিজেপি ,কংগ্রেস, সিপিএম কেউ বাদ পারেনি তালিকা থেকে ।বড় পদ পাওয়ার লোভে রীতিমতো নগ্ন ছবি চেয়ে বসলেন বিজেপি নেতা । আরো একবার বিতর্কে বঙ্গ বিজেপি । এর আগেও যে বিজেপি সম্পর্কে বিভিন্ন অশ্লীল ভিডিও কথা বা যৌন আবেদন এর কথা নেটদুনিয়ায় দেখা গিয়েছিল। কিন্তু এবার তার প্রমাণ হাতেনাতে পাওয়া গেল।

বড় পদ পাওয়ার লোভে নেতাদের যৌন সঙ্গী হচ্ছেন বিজেপির মহিলা কর্মীরা। প্রকাশ্যে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। বড় পদ পাইয়ে দেওয়ার জন্য স্নানের সময়ের নগ্ন অবস্থার ছবি চাইছেন জেলা সভাপতি। সেই সঙ্গে খুব স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিচ্ছেন, “আমি তোমার জন্য করছি, তুমি আমার জন্য করো।” এমনটাই অভিযোগ উঠেছে বারাসাত এর জেলা সভাপতি শঙ্কর চ্যাটার্জী এর বিরুদ্ধে । একটি ছবি কে ঘিরে বলা বাহুল্য একটি কথোপকথন এর স্ক্রিন শট এর ছবি কে ঘিরে জন্মায় এই বিতর্ক । যেখানে দেখা যাচ্ছে এক মহিলার প্রতি যৌনতা এর জন্য আবেদন জেলা সভাপতির ।

ছেলের স্কুলে ভর্তি হওয়াকে নিয়ে শুরু হয় এই যাত্রা । সেই সমস্যার জন্য দ্বারস্থ হন জেলা সভাপতি কাছে । পরে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হয় । বলে রাখি ওই মহিলা এবং জেলা সভাপতি দুজনেই বিবাহিত ।অন্যদিকে, ছেলে হোস্টেলে চলে গেলে তাঁর এবং জেলা সভাপতির ঘনিষ্ঠ হতে সুবিধা হবে। একটি মেসেজে এমনও লিখেছেন ওই মহিলা। কখনও আবার আশঙ্কা প্রকাশ করে লিখেছেন, “তুমি আমায় ইউজ করছো না তো?” পালটা আশ্বাস দিয়েছেন জেলা সভাপতি শঙ্কর চট্টোপাধ্যায়।

বিজেপির মহিলা মোর্চার সাধারণ সম্পাদিকা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন শঙ্করবাবু। সেই বিষয়টি খুবই স্পষ্ট হয়েছে ওই বার্তালাপে। এবং সেই জন্য নানাবিধ উপায়ে মহিলার কাছ থেকে নগ্ন ছবি চাইতেন তিনি।এই ঘটনা সামনে আসতেই শুরু হয় তীব্র প্রতিক্রিয়া । তবে এই ব্যাপার এ শঙ্কর বাবু জানান যে ” ভালো মতো দেখলে বোঝা যাবে ছবিটি ফটোশপ করা । আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য চক্রান্ত চলছে । সম্পূর্ন ভুয়ো এটি । আমি পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানাবো”। তবে ঘটনাটি যে ভুয়ো সেটা বিস্বাস করতে নারাজ বিরোধী দল গুলি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button