একটানা সাতদিন, ফের বিশাল পতন সোনার দামে, রইলো কলকাতার বাজারে আজেকের দাম!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা দিন তারপর এই অপেক্ষার অবসান । বাঙালিরা সারা বছর অপেক্ষা করে থাকে যে পুজোর জন্য বা যে সময়ের জন্য তা আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা । আমি ঠিক কি কথা বলছি তা সবাই আন্দাজ করতে পেরেছেন নিশ্চয়ই ?

বাঙালির শ্রেষ্ঠ পুজোর দুর্গাপূজার কথা বলতে চাইলাম । এই দুর্গাপুজো দিকে চেয়ে থাকে প্রতিটা বাঙালি সারা বছর ধরে । তার সাথে সাথে নিজেকে নতুনভাবে সাজিয়ে তোলার এক দুর্দান্ত সময় এই দুর্গাপুজো । কাজেই নিজেকে তুলে ধরার জন্য অনেকে প্রথমেই প্রাধান্য দিয়ে থাকে সোনাকে । অর্থাৎ সোনার প্রতি তাদের একটু বেশি ঝোঁক দেখা যায় ।

সামনে দুর্গা পুজো কে লক্ষ্য করে বিভিন্ন দোকানে সোনা প্রেমীদের ঢল ইতিমধ্যে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে । দোকানে দোকানে উপচে পড়ছে ভিড় । আমরা দেখেছি গত সেপ্টেম্বর মাসে পরপর তিনদিন সোনার দামের ব্যাপকহারে পতন ঘটেছিল । এর কারণ হিসেবে বাজার বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন ডলারের দাম কমে যাওয়ায় এবং মার্কিন আন্তর্জাতিক বাজারে অনিশ্চয়তার জন্য এই পতন।

তবে বেশ কিছুদিন পর শোনা যায় যে সোনার দাম আবার কিছুটা বৃদ্ধি পেতে চলেছে । তার কারণ হিসেবে বাজার বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন সম্প্রতি ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার স্ত্রী করোনাতে অসুস্থ হয়েছেন। কাজেই বিনিয়োগকারীরা নিরাপত্তা বিনিয়োগ হিসেবে সোনার উপর বিনিয়োগ করতে চাইবেন । ফলস্বরূপ শেয়ারবাজারে বাড়তে পারে সোনার দাম।

তবে হু হু করে না বাড়লেও কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছিল । কিন্তু ফের আরও একবার ঘটলো সেই সোনার বাজারের পতন । আসুন দেখে নেওয়া যাক আজকের দিনে কলকাতায় এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় সোনার দাম কত। তার সাথে সাথে রুপোর দামও আমরা জানবো ।

শুক্রবার দিন ২২ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৪৯৭৬০ টাকা । তবে বৃহস্পতিবার এর তুলনায় প্রতি গ্রাম পিছু ২০০ টাকা করে বৃদ্ধি পেয়েছে এই দাম । ঐদিন কলকাতায় প্রতি কেজি রুপোর দাম ৬১,২০০ টাকা যা বৃহস্পতিবার ছিল ৬০,০৫৫ টাকা । এর পাশাপাশি কলকাতায় ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ৫২,৬৭০ টাকা । মুম্বাইতে ২২ ক্যারেট সোনার দাম ৪৯,৪০০ টাকা এবং ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ৫০,৪০০ টাকা ।

এর পাশাপাশি চেন্নাইতে ২২ এবং ২৪ ক্যারেট সোনার দাম যথাক্রমে ৪৮,৫০০ এবং ৫২,৯০০ টাকা । কলকাতাতে সোনা এবং রুপোর দাম কী হবে তা নির্ধারণ করেন ” ওয়েস্টবেঙ্গল বুলিয়ান মার্চেন্ট এন্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন। জানা গেছে ভারতে মোট সোনা চাহিদা থেকে অধিক পরিমাণে সোনা বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়। ফলস্বরূপ বিভিন্ন শহরে বিভিন্ন রকম দাম হয় সোনার। ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button