বিরল এই 50 পয়সার কয়েন বাড়িতে থাকলেই পেয়ে যাবেন 1 লক্ষ টাকা! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমারা ছোটবেলাতে এমন একটা কথা শুনেছিলাম যেখানে বলা ছিল যে পুরনো জিনিসের দাম অনেক বেশি হয় বা প্রবাদবাক্য অনুযায়ী পুরনো চাল ভাতে বাড়ে । যদি ইংরেজি এর অনুবাদ করেন বা ইংরেজিতে এর প্রবাদ বাক্য জেনে থাকেন তাহলে সেটা হয় ওল্ড ইজ গোল্ড । এবার সেই ঘটনা প্রতিনিয়ত প্রতিটা মুহূর্তে প্রমাণিত হচ্ছে কারণ সম্প্রতি বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটের পুরনো কয়েন বিক্রি করে টাকা উপার্জন করার সুযোগ এসেছে প্রত্যেক দেশবাসীর কাছে ।

এবারে সেই সুযোগ এসেছে যাদের কাছে পুরনো ৫০ পয়সার কয়েন রয়েছে । দেখুন কম বয়সে বেশি টাকা উপার্জন করার স্বপ্ন আমাদের প্রত্যেকেরই থেকে থাকে । আমরা প্রত্যেকেই চাই যাতে আমরা একটু বেশি টাকা উপার্জন করতে পারি । এবং সংসারে অভাব অনটন দূর করতে পারি । কিন্তু সংসারের নিয়মের বেড়াজালে পড়ে আমরা তা করতে পারিনা । কিন্তু যদি হঠাৎ করে বাড়ির মধ্যে থাকা পুরনো জিনিস বিক্রি করে রাতারাতি লাখোপতি হয়েছে তাহলে ব্যাপারটা মন্দ হয়না ।

আপনি হয়তো ভাবছেন পুরনো জিনিসের দাম লাখ টাকা হতে পারে কিভাবে ? তেমনি জানাচ্ছে সমস্ত ই-কমার্স সাইটগুলো । যেখানে আপনি পুরনো দিনের কয়েন বিক্রি করে রাতারাতি লাখ টাকা উপার্জন করতে পারেন । সম্প্রতি জানা যাচ্ছে যে আটানার কয়েন অর্থাৎ পুরনো দিনের ৫০ পয়সার কয়েন যদি আপনার কাছে থেকে থাকে তাহলে আপনি সেটা indiamart.com ওএলএক্স বা কয়েন বাজার ইত্যাদি ওয়েবসাইটে নিলামে তুলতে পারেন ।

সেই সমস্ত ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার নিজস্ব একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে এবং সে একাউন্ট এর মধ্যে যাবতীয় তথ্য প্রদান করে কয়েনের ছবি তুলে পাঠাতে হবে তাদেরকে । মুহূর্তের মধ্যে লক্ষ্য লক্ষ্য ক্রেতার কাছে পৌঁছে যাবে সেই ছবি এবং সেই কয়েন নিলামে উঠবে। তারপর যে ব্যক্তি বেশি দাম দিয়ে সেটি কিনবে কত টাকা আপনার । তবে শর্ত সাপেক্ষে হিসেবে বলা হয়েছে সেই কয়েন ২০১১ সালে প্রকাশিত করেছিল সরকার এবং সেই বছরই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল ২৫ পয়সা বা চার আনার কয়েন । সেই অর্থে এই ৫০ পয়সার দাম এত বেশি ।

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button