“সিপিএমের রক্তে নৃশংসতা, স্বভাব রক্তচোষার মতো!” – বি’স্ফোরক মন্তব্য দেবাংশু ভট্টাচার্যের! ব্যাপক ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজনীতির মঞ্চে সবসময়ই যু-দ্ধ লেগে থাকে একথা আমি আপনি প্রত্যেকে জানি । কিন্তু রাজনীতি মঞ্চ থেকে দাঁড়িয়ে ভোটের আগে এর প্রবণতা অনেকটাই বেড়ে যায় । তীব্র সমালোচনা ক-টাক্ষ প্রতিনিয়ত ভিড় করে আমাদের টাইমলাইন । কিন্তু ভোট পেরিয়ে যাওয়ার পরও এই ধরনের তরজা থাকতে পারে সেটা প্রথমবারের মতন দেখা গেল এই ঘটনা থেকে । এবং এই ঘটনা নিতান্তই নিছক কোনো ঘটনা নয় । বরং একটি কুকুরকে নিয়ে ঘটনা । আপনি হয়তো ভাবছেন যে কুকুরের সাথে রাজনীতির সম্পর্ক কি?

সম্পর্ক রয়েছে এবং সেই সম্পর্ক ছেড়ে দিয়েছে বিশেষজ্ঞ মহলের সেটি আর নতুন করে বলার কোন অপেক্ষা রাখে না । ঘটনার সূত্রপাত ঘটে একটি কফি ডেট এ যাওয়া নিয়ে । কিছুদিন আগেই নিজেকে রেড ভলেন্টিয়ার্স বলে পরিচয় দেওয়া শশাঙ্ক ভাবসর নামক এক যুবকের সঙ্গে শর্তসাপেক্ষে ডেটে গিয়েছিলেন টলিউড অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। জানা যায় অভিনেত্রীর দেওয়া একটি ছোট সারমেয়র দায়ভার স্বেচ্ছায় নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন ওই যুবক।

কিন্তু তার পরেই তার বি-রুদ্ধে গুরুতর অ-ভিযোগ ওঠে। বেশ কিছুদিন পর কুকুরটির দেখা না পাওয়ায় অভিযুক্ত যুবককে বার বার প্রশ্ন করায় শেষ পর্যন্ত তিনি জানান কুকুর ছানাটি মা-রা গি-য়েছে এরপরই অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র শশাঙ্কের বি-রুদ্ধে কুকুরছানাটিকে হ-ত্যার অ-ভিযোগে বি-স্ফোরক এক পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। কিন্তু এখানেই থেমে যায়নি ।ঘটনাটি। ঘটনাটিকে সামনে রেখে তীব্র প্রতিবাদ করে

এবং কটাক্ষ করতে শুরু করে তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য । এই সেই দেবাংশু ভট্টাচার্য যার খেলা হবে গানটি ভোটের আগে ছড়িয়ে পড়েছিল রাজনৈতিক মঞ্চে তুমুলভাবে । এবার শ্রীলেখা মিত্রের বি-রুদ্ধে একরাশ অ-ভিযোগ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করল দেবাংশু ভট্টাচার্য । বাম দলের তীব্র সমালোচনা করে তিনি বলেন সিপিএমের রাজনৈতিক রক্তে কেবলই নৃশংসতা রয়েছে। পাশাপাশি দলের কর্মীদের ডিএনএতে পিশাকবৃত্তি রয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

এদিন তিনি অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রকেও পরোক্ষে ক-টাক্ষ করে বলেন তার ডেট এবং কফির সঙ্গে সঙ্গেই অবলা সারমেয়টির জীবন শেষ হয়ে গিয়েছে।অভিযুক্ত শশাঙ্ক ভাবসর নামক যুবকের বাবা কিংবা পরিবারের অন্য সদস্য বামদলের মেম্বার ছিলেন এমনটাই তিনি বিশ্বাস করেন তাও জানাতে ভোলেননি দেবাংশু নিজের পোস্ট এর মাধ্যমে। ইতিমধ্যে এই খবরটি এখন খবরের শিরোনামে রয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button