লাগামছাড়া বাড়তে পারে ডাল-চাল-তেলের দাম, কপালে ভাঁজ পড়তে পারে মধ্যবিত্তের!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজ্যসভায় কিছুদিন আগেই পাশ হলো “কৃষি বিল” । এই বিল কে ঘিরে চলতে থাকে বিরোধিতা ,সমর্থন । তবে বলা বাহুল্য সমর্থনের থেকে বিরোধিতা অনেক বেশি । সরকার এর মতে এতে কৃষকদের থাকবে সুবিধা , কিন্তু বাস্তব পরিস্তিতি বলছে অন্য কথা ।

এবার এই কৃষি বিলের পাশাপাশি পাশ হলো “অত্যাবশকীয় পণ্য” এর তালিকা । অবাক ও দুশ্চিন্তার বিষয় যে সেই তালিকা থেকে বাদ পড়েছে , চাল, ডাল , আলু, পেঁয়াজ, ভোজ্যতেল সহ আরো বেশ কিছু জিনিস । আর তাতেই মাথায় হাত সাধারণের । খবরটি সামনে আসতে শুরু হয় তীব্র প্রতিক্রিয়া । কৃষি বিল প্রত্যাহারের পাশাপাশি চলতে থাকে এর ও বিরোধিতা ।

সম্প্রতি বিরোধী শুন্য রাজ্যসভা হওয়াতে সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ৭ টি গুরুত্বপূর্ন বলিল পাশ করালো মোদি সরকার । এই অত্যাবশকীয় পণ্যের আইন এ সরকার পরিষ্কার ভাবে জানান যে ” এই পণ্যগুলির উৎপাদন, মজুতদারি, রফতনি ও বিক্রি এবং কোনও ক্ষেত্রে সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণ থাকছে না ৷ একমাত্র আপৎকালীন পরিস্থিতিতে সরকার হস্তক্ষেপ করতে পারে৷ কিন্তু সাধারণ সময়ে এরকম কোনও লাগাম সরকারের হাতে আর থাকবে না৷ ” । তবে এতে যে কৃষক থেকে শুরু করে সাধসরণ মানুষের সুবিধা হবে এমনটাও মনে করছেন অনেকে ।

মূলত মজুতদারি রুখতে এই ব্যবস্থা । তালিকাভুক্ত খাদ্য দ্রব্য গুলি ইচ্ছা মতো কিনে মজুত করে দাম বাড়ানো আর চলবে না । বাজারে এবার দর হাঁকবে কৃষক রা । এর ফলে বাজারে একটা বড় মাপের দাম বৃদ্ধি পেতে পারে এমনটাই আশঙ্খা করছে অনেকে । যেহেতু কোনো নির্দিষ্ট দাম বা নিয়ম আর থাকছে না তাই এমনটা হওয়া খুব স্বাভাবিক, – মত একাংশের ।

এর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারমঙ্গলবার বিরোধীশূন্য রাজ্যসভায় একলাফে ৭টি বিল পাশ করিয়েছে ৷ আইআইআইটি আইন (সংশোধনী) বিল থেকে শুরু করে ব্যাঙ্কিং নিয়ন্ত্রণ (সংশোধনী) বিল, কোম্পানিজ (সংশোধনী) বিল, ন্যাশনাল ফরেন্সিক সায়েন্স ইউনিভার্সিটি বিল, রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় বিল ও ট্যাক্স ও অন্য আইন সংশোধনী বিল পাস করিয়ে নিয়েছে কেন্দ্র৷
কিন্তু আদতে কি হবে বা হতে চলেছে টা সময় বলবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button