“রাজ্যে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রাষ্ট্রপতি শাসন প্রয়োজন”, বিজেপি নেতা খুনে তোপ বাবুলের!

নিজস্ব সংবাদদাতা: দীর্ঘদিন পর আসানসোলে ফিরলেন বাবুল সুপ্রিয়। করোনা আবহে লকডাউন থাকে আস্তে পারেননি। আসানসোলে এসে তিনি উঠেছেন এক হোটেলে, কোভিড টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছে তার স্যাম্পল। এদিন সাংবাদিকদের সঙ্গে দেখা করে বারাকপুরের ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “তৃণমূলের মিছিল শেষ হয়ে যাওয়ার পর গুলি করে মারা হয়েছে অর্জুন ভাইয়ের একদম কাছের ছেলেকে।

আমরা বহুবার রাষ্ট্রপতির কাছে গিয়েছি ৩৫৬ জারি করার জন্য। পশ্চিমবঙ্গের যা অবস্থা তৈরি করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তাতে ৩৫৬ জারি করাই উচিত। তবে আমরা মানুষের রায়ে বিশ্বাস করি।”

রাজধানী এক্সপ্রেস থেকে জখুন আসানসোলে স্টেশন এ নামেন তিনি, পুরো স্টেশন জুড়ে তখন ভিড়। এই ভিড় সরিয়ে স্টেশন থেকে বেরোতেই প্রায় ঘণ্টাখানেক লেগে যায়। বাবুল সুপ্রিয় এই ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া দিয়ে জানান, “খুব ভাল লাগছে এতদিন পর এসে। কিন্তু আমার চারপাশটা দেখেই বুঝতে পারছেন সমস্ত নিয়ম ভেঙে গিয়েছে।

আমি এলাকায় ঘুরলে এরকম হবে এটা আমি জানতাম তাই এতদিন আসিনি। মানুষের উচ্ছ্বাস, ভালবাসাকে তো উপেক্ষা করার উপায় নেই। তাই গাড়িতে আমি অন্তত ১ হাজার মাস্ক নিয়ে ঘুরছি। যেখানে যাবো, মানুষকে দিতে হবে।”

এদিন উত্তরপ্রদেশের হাথরাস এর ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে সোজা সাপটা ভাষায় তিনি বলেন, “যোগিজি সিবিআই তদন্তের কথা নিজে থেকেই বলেছেন। যে সমস্ত পুলিশ আধিকারিক বেপরোয়াভাবে কাজকর্ম করেছে তাদের উপর শাস্তির খাঁড়া নেমে এসেছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাস্তায় নামার কোনও অধিকার নেই এটা একটা দেশব্যাপী, বিশ্বব্যাপী সমস্যা। সেজন্য আমাদের সবাইকে একসঙ্গে লড়তে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button