বিজেপির মেজাজ খুশি করে TMC কে বড় ঝটকা দিয়ে TMC ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিল ১০০টি মুসলিম পরিবার!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-একুশে ভোট যতই সামনে আসছে ততই যেন রাজনৈতিক দলগুলি পাল্টাচ্ছে তাদের গঠনের রূপরেখা । একের পর এক চমক । কোথাও কোথাও নতুন নির্দেশিকা । কোথাও কোথাও পাশে থাকার বার্তা । প্রতিটি রাজনৈতিক দলের উদ্দেশ্য মানুষের বিশ্বাস আরো দৃঢ় করতে হবে। ইতিমধ্যে প্রচার শুরু হয়ে গেছে। রাস্তায় রাস্তায় দেখা যাচ্ছে মিছিল । তবে বর্তমান পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে বেশির ভাগ আলোচনা ভার্চুয়াল মিটিং এর মাধ্যমে হচ্ছে । বাংলায় ক্ষ-ম-তা থাকা শাস-কদল তৃণমূল সরকার কে বিরোধী দল হিসেবে বিজেপি দিয়ে চলছে একের পর এক ঝটকা । একটা রেশ কাটতে না কাটতে দিচ্ছে অন্য ধাক্কা । সে রকম একটি ঘটনা ঘটল বসিরহাট এলাকায় ।

বঙ্গ বিজেপি একই টুইটারে পোস্ট থেকে জানা যায় যে বসিরহাটে এক নয় , দুই নয় বরং , কমপক্ষে ১০০ টি পরিবার বিজেপিতে যোগদান করেছে। ঘটনাটি সামনে আসতেই তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকেও । রীতিমত একটা বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে তৃণমূল এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশের । মূলত দুর্নী-তি এবং ক্ষম-তার অপব্যবহারের রুখতে এইরূপ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মানুষ এমনটাই মনে করছেন অনেকে।

পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট বিধানসভার বাদুরিয়া এলাকায় ১০০ টি পরিবার যোগ দিল বিজেপিতে । তারা জানান মোদি সরকারের উন্নয়নমূলক কাজে করেছে প্রচুর । তাই মোদি সরকার হাত শক্ত করতে আমরা যোগ দিচ্ছি বিজেপিতে । এবং তৃণমূল ছাড়ার কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করেন যে কোনো উন্নয়নমূলক কাজ এলাকায় হয়নি তৃণমূলের দ্বারা এবং ক্ষম-তার অপব্যবহার এবং দুর্নী-তি হয়েছে শুধু তাই তারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে । অবশ্য এই ১০০ টি পরিবারকে সাদরে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বঙ্গ বিজেপি।

বঙ্গ বিজেপি এই সংখ্যালঘু একশটি পরিবারকে যে সাদরে আমন্ত্রণ জানিয়েছে তা স্পষ্ট বোঝা যায় তাদের টুইটার হ্যা-ন্ডেলে একটি পোষ্ট থেকে । বঙ্গবিজেপির টুইটার হ্যা-ন্ডেল লেখা হয়েছে, ১০০ টি সংখ্যালঘু পরিবার তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছে। তৃণমূলের অপ-শাস-নকে দূর করতে এবং মোদীজির হাত শক্ত করতে এরা বিজেপিতে যোগদান করেছে। নবাগত সদস্যদের স্বাগতম। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসা পরিবারগুলির কিছু ছবিও শেয়ার করা হয়েছে বঙ্গবিজেপি টুইটার হ্যা-ন্ডেল থেকে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতামত একুশের ভোটের আগে রীতিমতো বড়সড় ধা-ক্কা খেলে তৃণমূল। তবে কীভাবে এই ধা-ক্কা সরিয়ে উঠতে পারে সেটাই এখন দেখার বিষয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button