‘কৃষকেরা সন্ত্রাসবাদী’! কৃষি বিলের বিরোধিতা প্রসঙ্গে ফের বি’স্ফো’রক মন্তব্য কঙ্গনার!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-বলিউড এ যতবার বিতর্ক এসেছে ততবার ই শিরোনাম এ উঠে এসেছে কঙ্গনা রানাউত এর নাম । বার বার ,একের পর এক বিতর্কমূলক মন্তব্য করে রোষের মুখে পড়েছেন এই অভিনেত্রী । কিন্তু তাতে থেমে থাকেন নি তিনি । কোনো কিছুকে পরোয়া না করে কটাক্ষ করেছে একের পর এক তারকা, নেতা ,মন্ত্রী , বা পরিচালকদের । কোথাও যেন অনেকের মনে হচ্ছে ” বিতর্কের অপর নাম কঙ্গনা রানাউত” । কেউ কেউ মনে করেন ইচ্ছাকৃত ভাবে শিরোনামে থেকে ফুটেজ খাবার জন্য মরিয়া এই বলিউড ” কুইন” ।

এবার বিতর্কের ময়দান ছাড়লেন কঙ্গনা রানাউত । যোগ দিলেন অন্য বিতর্ক ময়দানে । বলিউড ছেড়ে চোখ রাখলেন রাজনীতি তে । অনেক বিরোধিতা থাকার সত্ত্বেও রাজ্যসভায় দুটি বিতর্কমূলক বিল পাস করান কেন্দ্রীয় সরকার । তার মধ্যে একটি হলো কৃষি বিল । এই কৃষি বিলের বিরোধিতায় রীতিমতো মাঠে নেমেছে বহু রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে সিনেমার তারকা রা । করেছে একের পর এক মন্তব্য । এবার সেই সমস্ত ক্ষেত্র থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখতে পারলেন না বলিউড এই অভিনেত্রী ।

আমাদের দেশে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা প্রধানত কৃষি ভিত্তিক রাজ্য । কাজেই এই কৃষি বিল আইন এর প্রভাব সব থেকে বেশি যে এই দুই রাজ্যে পড়বে সেটাই খুব স্বাভাবিক । এই দুই রাজ্যের কৃষকরা বেজায় চোটে আছেন । এবার সেই কৃষক দের স-ন্ত্রা-সবাদী বলে ফরে আরো একবার বিতর্কে জড়ালেন কঙ্গনা রানাউত ।

সম্প্রতি তিনি একটি ট্যুইট করেন । এবং তার বয়ানে মোদির উদ্দেশে তিনি লেখেন ” মোদিজি কেউ ঘুমিয়ে থাকলে তাকে জাগানো যায়। যে ভুল বুঝছে, তাকে বোঝানোও যায়। কিন্তু যে ঘুমনোর ভান করে কিংবা না বোঝার অভিনয় করে, তাদের বোঝাতে পারবেন না আপনি। এরা সেই সন্ত্রাসবাদীরাই যারা CAA-এর জন্য দেশের নাগরিকত্ব না হারালেও র-ক্তগ-ঙ্গা বইয়ে দিয়েছিল…।” এই বক্তব্য সামনে আসতেই শুরু হয় চা-ঞ্চ-ল্য । নেট দুনিয়া রীতিমতো ক্ষো-ভ এ ফাটছে কঙ্গনার বি-রু-দ্ধে । উঠেছে দেশ জুড়ে হ্যাশট্যাগ এর ঝড় ।

যে কৃষক সম্প্রদায়ের জন্য দেশের প্রতিটা মানুষ খেয়ে বেঁচে আছে , যাদের পরিশ্রম এর ফল এর জন্য এখনও অবধি দেশকে খাদ্য সংকটে পড়তে হয়নি সেই কৃষক দের স-ন্ত্রা-স-বাদী বলা যে কি অপরাধ সেটা তিনি বুঝতে পারেন নি । এমনটাই মত অনেকের । শুধু এখানে থেমে থাকে নি বলিউড কুইন । সেই মন্তব্য কে মূলত ঢাকা দেবার জন্য তিনি এই প্রসঙ্গে ওইদিন একহাত নিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী কে ।

তিনি বলেন ” শ্রীকৃষ্ণের যেমন নারায়ণী সেনা ছিল, পাপ্পুর তেমনই এক চাম্পু সেনা রয়েছে, যারা কিনা শুধু আ-ত-ঙ্ক ছড়িয়ে লড়াই করে বেড়ায়। এটা হচ্ছে আমার আসল টুইট। কেউ যদি এখনও প্রমাণ করে দিতে পারেন যে আমি কৃষকদের আ-তঙ্ক-বাদী বলার চেষ্টা করেছি, তাহলে চিরজীবনের জন্য টুইটার ছেড়ে দেব।”। দিনের পর দিন কঙ্গনা রানাউত এর বিতর্কের মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছেন এমিনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button