‘বাংলার উন্নয়নে বাঙালির চেয়ে বেশি ভূমিকা বাইরের মানুষের’- ফের বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের!

নিজস্ব প্রতিবেদন ,:-আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা মাস । তারপর এই ভোটের হাওয়া লাগতে চলেছে রাজ্য জুড়ে । এমতাবস্থায় প্রতিটি রাজনৈতিক দল প্রস্তুতি রেখেছে । তার পাশাপাশি যেনতেন প্রকারে পদ্ম ফুল ফোটাতে হবে এই বাংলাতে এমন মানসিকতা নিয়ে লড়াই জারি রেখেছে বঙ্গ বিজেপি । সামনে বিধানসভার ভোট কে পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে তারা । তবে এর আগেও বিভিন্ন বিতর্কে জড়িয়ে ছিল রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ । এর আরো একবার বেফাঁস মন্তব্যের জন্য জড়ালেন বিতর্কে ।

ঐদিন এক সভা থেকে তিনি মন্তব্য করেন এমন এক ধরনের যাকে ঘিরে শুরু হয় ঘর বিতর্ক । আমরা সকলে জানি বাঙালির অবদান ঠিক কতটা । সেই স্বাধীনতা আন্দোলনের আগে থেকে যদি কোন জাতির অবদান সবথেকে বেশি থাকে তবে সেটি হলো বাঙালি । সবথেকে বেশি বাঙালি স্বাধীনতা সংগ্রামী রা প্রাণ দিয়েছেন দেশের জন্য । নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাজী নজরুল ইসলাম এর মাটি এই বাংলা । কিন্তু তা সত্ত্বেও বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্য অনুসারে উল্টো কিছু একটি ঘটনা ।

আগামী ভোটে বিজেপির লক্ষ বাংলা । তাই বাঙালি সংস্কৃতিকে রক্তে আনতে চাইছে তারা । তার পাশাপাশি অবাঙালিদের ভোট কিন্তু চায় তাদের । কিন্তু তৃণমূলের লক্ষ্য শুধুমাত্র বাংলা ।ফলে দু’দলের মধ্যে লেগেছেন বাংলা এবং বহিরাগত লড়াই । সেই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষের সভা থেকে বলেন যে এই কলকাতায় যারা ট্যাক্সিচালক ট্রেনচালক ট্রাকচালক তারা বহু যুগ থেকে ইউপি বিহার থেকে এসেছে ।

কলকাতায় বাঙ্গালীদের থেকে অবাঙালিদের অবদান সবথেকে বেশি । রবীন্দ্রনাথকে শুধুমাত্র বাংলার জন্য লিখেছিলেন নাকি ভারতবর্ষের জন্য । আইপিএস ইউপিএস অফিসাররা ইউপি বিহার থেকে আসা । তাদেরকে নিয়ে আপনি ঘুরে বেড়ান তারা বহিরাগত নয় ? প্রধানমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বহিরাগত তাহলে হিসেব মতো । ” এই ধরনের মন্তব্য করেন ওই সভা থেকে যার ফলে তিনি ফের বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন । ক্ষোভ ফুসছে সমগ্র বাঙালি জাতি ।

এ কথা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই যে সর্বক্ষেত্রেই বাঙালি জাতি সবার আগে এগিয়ে ছিল। এবং তাঁর অবদান সবার থেকে বেশি। কিন্তু ভোটের প্রাক্কালে বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের এই ধরনের মন্তব্য বাঙালি জাতিকে অপমান করেছে বলে মনে করে অনেকে । তাহলে কি এর প্রভাব আগামী দিনে ভোটে পড়তে চলেছে? নাকি সবকিছু ভুলে ভুলে মেরুদন্ড বিকিয়ে সেই পদ্মফুল বোতামে চাপ দেবে এই বাংলার বাঙালিরা ? সেটি শুধুমাত্র সময় বলবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button