নীতা আম্বানির কাছেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফোন! কি সেই ফোন? দাম কত জানেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন :-দামি ফোন ব্যবহারের ইচ্ছা কম বেশি সকলের আছে । কে না চাই যে তার বুক পকেটে থাকুক সব থেকে দামি ফোন । কিন্তু বিভিন্ন কারণে সেটা আর হয়ে ওঠে না । কোথাও আর্থিক সমস্যা তো কোথাও আবার হারিয়ে ফেলার ভ-য়। কোথাও আবার ঠিক মতো রক্ষনাবেক্ষন এর অভাবে কেনা হয়ে ওঠে না দামি ফোন । তাই কার্যত কাজ চালিয়ে নেবার মতো একটা স্মার্টফোন থাকলে হবে ।

এমনটাই বিস্বাস এখনকার প্রজন্মের । আগেকার দিনের ল্যান্ড ফোন এর সময় কালকে অতিক্রম করে বাজারে এসেছে মুঠোফোন । যা আগের তুলনায় অনেক সুবিধাজনক । ১৯৭৩ সালে মোটরওয়ালা প্রথম মুঠোফোন বা সেল ফোন বাজারে আনেন । তারপর ই শুরু হয় পরিবর্তন । সময় এর সাথে তাল মিলিয়ে পাল্টাতে থাকে এর চেহেরা ।

দামি ফোন এর কথা মাথায় এলে প্রথমে যে কোম্পানির কথা উঠে আসে তা হলো অ্যাপল’। ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের সবচেয়ে দামি মোবাইল ফোন তৈরি করে হইচই ফেলে দেয় বাজারে । এর পর আসতে থাকে একের পর এক দামি মডেল । বাজারের চাহিদা যত বাড়ছে ততই বাড়ছে ফোনের মান ও দাম ।

এরপর অ্যাপলের ‘আইফোন’ ব্যান্ড তৈরি করে ‘ফ্যালকোন সুপারনোভ আইফোন-৬ পিঙ্ক ডায়মন্ড’। যার বাজারমূল্য ধরা হয়েছিল ১১০ দশমিক ৫ মিলিয়ন ডলার। যা বর্তমান বাজারের দাম অনুযায়ী প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা । অবাক হচ্ছেন? । এত দামের আবার ফোন ও হতে পারে? । হ্যাঁ পারে । যদিও পরে এর দাম কমিয়ে ৫০০ কোটি টাকা করা হয়েছিল ।

দামি ,উচ্চমানের ফোন এখন টেক্কা দিচ্ছে দামি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার কে । এহেন এমন কোনো কাজ থাকে না যেটা ফোনে করা যায় না আজকাল । বিশ্বের সবচেয়ে দামি এই ফোনটিতে রয়েছে ২৪ ক্যারেটের স্বর্ণ। গোলাপি স্বর্ণ দিয়ে সাজানো হয়েছে ফোনটি। ফোনটির বডিতে ব্যবহার করা হয়েছে প্লাটিনাম। বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে এই ফোনে । এমনটাই সূত্রের খবর ।তবে কি আদেও বিক্রি হয় এই ফোন? । হ্যাঁ হয় । প্রথমে এই কোম্পানি ২০০ টি নির্দিষ্ট গ্রাহক এর জন্য বাজারে আনে ।

ভারতের সব চেয়ে বড় শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির এর স্ত্রীর কাছে আছে এই ফোন । কিছুদিন আগে এমনি এক চাঞ্চল্যকর কথা বাজারে ঘোরা ফেরা করে । সেটা হওয়া যে খুব অস্বাভাবিক তাই কিন্তু নয় ,তবে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে এরম কোনো ফোন তাদের কাছে নেই । নিছক ই এটা একটা গুজব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button