“হিটলারি কায়দায় দেশ চালাচ্ছে মোদী, কৃষি বিলের প্রতিবাদ করে মোদিকে তীব্র কটাক্ষ মমতার!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এই মুহূর্তে দেশের সবথেকে বড় আলোচিত খবর হলো কৃষক বিল ২০২০ । কি এই কৃষক বিল? বহুদিন আগে কৃষকদের সুবিধার্থে ,স্বার্থে একটি বিল সরকার কর্তৃক পেশ করা হয় যেখানে বলা হয় যে কোনো ব্যক্তি বা বেসরকারি সংস্থা যদি কোন কৃষকের থেকে কোন ফসল বা আনাজ কেনেন তাহলে সরকারকে একটা নির্দিষ্ট ট্যাক্স দিতে হবে ।

মূলত কৃষকের ওপর জোর জুলুম বা অন্যায় ভাবে অত্যাচার রুখতে এই বিল পাস করা হয়েছিল। তার সাথে সাথে যে কোন ফসলে একটি নির্দিষ্ট ন্যূনতম দাম বেঁধে দিয়েছিল সরকার। কিন্তু সেই বিল আর কার্যকর হচ্ছে না বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার ।

কিন্তু কেন হচ্ছে না তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি সরকার এই বিলের প্রত্যাহারের দাবি করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন গুলি বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী জানান এই বিল কৃষকের জীবন শেষ করে দেওয়ার বিল আদানি আম্বানি দের হাতে কৃষিব্যবস্থা বিকিয়ে দেওয়ার বিল চুপ থাকেনি তৃণমূল । সোমবার নবান্ন একটি সাংবিধানিক বৈঠকের একাধিক ইস্যু নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন তৃণমূল নেত্রী ।

ঐদিন নবান্নে সাংবিধানিক বৈঠকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুলভাল খবর ছড়ানো কৃষকের এই বিল প্রত্যাহারের দাবি সহ একাধিক দাবি নিয়ে সরব হয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন “হিটলারি “কায়দায় দেশ চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। কৃষকের জীবন অনিশ্চিত মধ্যে ফেলে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্ত কালোবাজারিদের পাকাপাকি বন্দোবস্ত করছে কেন্দ্রীয় সরকার। ঐদিন কটাক্ষ করে তিনি বলেন কিছু ধরতে পারে না আবার অজগর ধরতে এসেছে ।

রাজ্যসভায় কৃষকদের প্রত্যাহারের দাবি তোলার জন্য ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং দোলা সেন সহ আটজনকে সোমবার সকাল থেকেই সাসপেন্স করেছে চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু । ওই দিনটিকে ব্ল্যাক সানডে”হিসেবে ঘোষণা করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ।তার সাথে সাথে মঙ্গলবার থেকে দেশজুড়ে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামবে তৃণমূল সরকার ।

এ কথা পরিষ্কারভাবে জানান তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । মঙ্গলবার গান্ধী মূর্তির পাদদেশে থেকে শুরু হবে এই আন্দোলন। সামিল হবে ছাত্র সমাজ ও কৃষক সংগঠন । জিএসটি বিল এবং বকেয়া টাকা না মেটানোর ও রাজ্যসভা থেকে বহিষ্কার করার জন্য ওইদিন কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেছেন “বাংলা চিরকালই পথ দেখিয়েছে এবারও দেখাবে তৃণমূল সরকার পিছনের সারিতে কাঁসরঘন্টা বাজাবে সামনে থাকবে সাধারণ মানুষ “। তিনি এও বলেন “ভাত দিতে পারেনা কিল মারার গোসাই”। সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ফেক ছবি ছড়ানোর জন্য কেন্দ্রকে একহাত নেন তিনি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button