নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে একটানা 20 বছর, নতুন মাইলফলক ছুঁলেন মোদী!

নিজস্ব সংবাদদাতা: ২০০১ সালের ৭ অক্টোবর গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হন নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদী। তৎকালীন রাজনৈতিক অবস্থাও টালমাটাল সেই রাজ্যে। তার ওপর মুখ্যমন্ত্রী হবার পর পরই হতে যায় প্রাকৃতিক দূর্যোগ, ভ-য়-ঙ্ক-র ভূ-মিক-ম্পে ভূজ প্রায় মিলিয়ে যায়।

ঠিক তার পরের বছরেই ভারতের ইতিহাসের কালো অধ্যায় ২০০২ সালে গুজরাট হিংসা। সেই সব বাধা বি-প-ত্তি সরিয়ে গুজরাটে নিজের হাত শক্ত করেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী এবং আজকের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

পরপর তিনবার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি। এই অবস্থায় রাজ্যের উন্নয়ণ বিপুল পরিমাণে করেন। এই কারণে সারা দেশে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠে নরেন্দ্র মোদীর ‘গুজরাট মডেল’। বলতে গেলে ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের সময়ে বিজেপির নির্বাচনী প্রচারের আচিভমেন্ট এর তালিকায় প্রথমেই ছিল গুজরাট মডেল। ।

সেই ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন নরেন্দ্র মোদী। ২০১৯ সালে ফের হলো লোকসভা নির্বাচন। এবারে আগের চাইতে বেশি সংখ্যক আসনে বিপুল জনাদেশ নিয়ে ফের দেশের প্রধানমন্ত্রী আসনে নিজেকে ফিরিয়ে আনেন।

মুখ্যমন্ত্রী কিংবা প্রধানমন্ত্রী- উভয়পদেই বিতর্ক তার সঙ্গে সর্বত্র থেকেছে। দেশে তখন এক নতুন বিষয়, শিল্প সম্মেলন চালু করেছিলেন তিনি। ২০০৩ সালে এই শিল্প সম্মেলন করেছিলেন তিনি।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, নিজেকে বারবার চ্যালেঞ্জ করেছেন নরেন্দ্র মোদী, প্রশাসনিক জীবনে ঝুঁকি নিয়েছেন অনেকবার নোট বাতিল, জম্মু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা, কাশ্মীরের বিশেষ ৩৭০ ধারা রদ, তিন তালাক বাতিলের মতো পদক্ষেপদেশে বিতর্ক সৃষ্টি করলেও, এসবে তার জনপ্রিয়তা কমেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button