মিড ডে মিল নিয়ে বড় কড়া ঘোষণা কেন্দ্রের, নয়া নির্দেশিকা জারি শিক্ষা মন্ত্রকের!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-করোনার জেরে রীতিমতো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সমস্ত শপিংমল স্কুল কলেজ অফিস কাছারি সবকিছু । তবে দেশজুড়ে ধীরে ধীরে আনলক পর্ব শুরু হওয়া তে খুলতে শুরু করেছে সেই সমস্ত পরিষেবাগুলি । ধিরে ধিরে চালু হচ্ছে রেস্তোরাঁ শপিংমল অফিস কাছারি ।

তার সাথে সাথে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে এই মাস থেকেই ধাপে ধাপে খুলতে চলেছে স্কুল গুলি । তবে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত স্কুল খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র । এবং এর পাশাপাশি এই সিদ্ধান্ত রাজ্যের উপর ছেড়ে দিয়েছেন ।

ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক একটি নির্দেশিকা জারি করেছে স্কুল খোলার নিয়ে । যেখানে বলা হয়েছে বেশকিছু সতর্কতার কথা যা মানতে বাধ্য স্কুল কর্তৃপক্ষ গুলি । কিন্তু সেখানে সেই সিদ্ধান্তের তালিকায় জুড়ে দেওয়া হলো আরো একটি বিষয়। কই সেই বিষয় আসুন দেখে নেওয়া যাক ।

কেন্দ্র এবং রাজ্য শাসিত অঞ্চলের স্কুলগুলিতে মিড ডে মিল এর ব্যবস্থা করা হয়েছে অর্থাৎ দুপুরবেলায় ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে খাবার দেওয়া হয় স্কুলের তরফ থেকে । কিন্তু যারা এই মিড ডে মিলে রান্না করেন বা দেখাশোনা করেন তাদের উপর জারী করা হলো এই নতুন নির্দেশিকা ।

যে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে স্কুল কর্তৃপক্ষ গুলিকে প্রথমত রান্নার পরিচালিকা বা কর্মীদের একটি করে সেল্ফ ডিক্লারেশন দিতে হবে যে তিনি এবং তার পরিবার সুস্থ আছেন । প্রতিদিন স্কুলে ঢোকার আগে করতে হবে থার্মাল স্ক্রীনিং, পড়তে হবে মাস্ক। এমনকি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এটি যে রান্না করার সময় চুড়ি আংটি, নেলপালিশ জাতীয় কিছু পড়া যাবে না ।

মন্ত্রকের নির্দেশিকা বলছে, নেল পালিশ বা নকল নখ পরা চলবে না, সে সব খাবারে বিষক্রিয়া ঘটাতে পারে। ঘড়ি, আংটি, গয়না, চুড়ি- রান্না ও পরিবেশনের সময় এ সব কিছুই পরা চলবে না। থুতু ফেলা,নাক ঝাড়া কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। রাঁধুনি ও অন্যান্য সাহায্যকারীদের পর্যাপ্ত পরিমাণ পরিচ্ছন্ন অ্যাপ্রন ও মাথা ঢাকা টুপি দিতে হবে। রান্নার বাসনকোসন হতে হবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন।

রান্নার তরিতরকারি ভালভাবে পরিষ্কার করতে হবে নুন-হলুদ দিয়ে বা ৫০ পিপিএম ক্লোরিন বা এমন মিশ্রণ দিয়ে। জল হতে হবে সুপেয়। শারীরিক দূরত্ব যাতে বজায় থাকে তার জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন যে মিড ডে মিলের খাবার যেন একটি ব্যাচ এ দেওয়া না হয়। বিভিন্ন ব্যাচ এ ভাগ করে দেয়া হয় । তা যদি সম্ভব না হয় তবে ছাত্রছাত্রীরা ক্লাস রুমের মধ্যেই খাবে মিড-ডে-মিল। এবং স্কুল কর্তৃপক্ষ গুলিকে পরিষ্কার দাগ দিয়ে তা স্পষ্ট করতে হবে’। রীতিমতো এই ধরনের নির্দেশিকা পাওয়ার পর কিছুটা হলেও স্বস্তি তে ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবকরা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button