যৌ’নতা ও ঘনি’ষ্ট’তা নিয়ে এবার সম্পূর্ণ খোলাখুলি মুখ খুললেন মধুমিতা, কী বললেন তিনি? দেখুন

নিজস্ব প্রতিবেদন:-স্টার জলসায় অতি জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক বোঝেনা সে বোঝেনা থেকে শুরু হয় তার অভিনয় জগত । তারপর একের পর এক অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করে নিয়েছেন লক্ষ লক্ষ দর্শক এর মন ” লাভ আজ কাল পরশু” সিনেমাতে অভিনয় করে রীতিমতো চমকে দিয়েছেন তার অনুগামীদের । আমি কার কথা বলছি নিশ্চয়ই আপনারা বুঝতে পারছেন । আমি সেই পাখি বা ইমন এর কথা বলতে চাইছি ।

সেই মধুমিতা সরকার বা পাখি নিজেকে পাল্টে ফেলেছে সময়ের সাথে সাথে । করে তুলেছে নিজেকে আকর্ষনীয় । তার সম্প্রতি” লাভ আজ কাল পরশু” ছবি নিয়ে সাংবাদিকরা বেশ কিছু প্রশ্ন থাকে করেন এবং তার উত্তরে তিনি খোলামেলা জবাব দেন। কি কি প্রশ্ন ছিল তা আপনাদের সামনে তুলে ধরবে ।

প্রশ্ন:- ধারাবাহিক থেকে সিনেমায় যাওয়ার কারণ কি?
:- একজন অভিনেত্রী সারা জীবনই কি ‘পাখি’ বা ‘ইমন’ শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, সাধারণ মেয়ে, এভাবেই থেকে যাবে তা কি হয়? সে তো নিজেকে ভাঙবে!

প্রশ্ন:- ভাঙতে গিয়ে সে একেবারে প্রে’ম আর যৌ’নদৃ’শ্যে পৌঁছে গেল?
উত্তর:- প্রসঙ্গটা তুলে ভালোই করেছেন। এখানে আমি কিছু বলতে চাই। ২০২০-তে দাঁড়িয়ে প্রে’মের ছবিতে কোনো যৌ’নতা থাকবে না এটা আশা করাটাই তো ভুল।আপনি ভাবুন, প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেমেয়ে যদি বন্ধু হয়, তারা একান্তে কোনো জায়গায় তিন-চার ঘণ্টা সময় কাটাতে পারে, তা হলে তারা কিস করবে না? আমরা বাঙালিরা সব করব। ইংরেজি ছবিতে অবাধ যৌন দৃশ্য দেখব। বিদেশিদের অজস্র বার চুমু খেতে দেখব।

প্রশ্ন:- ধারাবাহিকের নায়িকা হয়ে সিনেমা করতে এসে আপনি কোন বিকল্প পথ ধরলেন?
উত্তর:- ‘আমি অর্জুনের সঙ্গে এ ছবিতে অভিনয় করব। তাই অর্জুনের সব ছবি দেখেছি।
ও কোথায় কেমন রিঅ্যাকশন দেয় সেটা বোঝার চেষ্টা করেছি। প্রতীমদা কিছু বিদেশি ফিল্ম দেখতে বলেছিল। সেগুলো মন দিয়ে দেখেছি। খুব বড় চ্যালেঞ্জ ছিল এই ছবিটা আমার জন্য। এখানে তিনটা লাভ ফর্ম আছে। সেটা এক সুতোয় বাঁধা।

প্রশ্ন:- আপনি সেটে নাকি মনিটর দেখতেন? উত্তর:- ‘হ্যাঁ। আমি বসে থাকতে পারি না। পাওলিদিকে দেখতাম। প্রত্যেক ফ্রেমে পাওলিদি আলাদা। এত শক্তিশালী অভিনেত্রী। আমিও চেষ্টা করেছি অভিজ্ঞতা দিয়ে চরিত্র তৈরি করার।’

এর পাশাপাশি মধুমিতা সরকার তুলে ধরেন মিডিয়া সেই সমস্ত গুজব রটানো কথা যখন তার সম্পর্ক ভেঙে যায়। তখন মিডিয়া গুজব রটেছিল যে অন্য একটি সম্পর্কে লিপ্ত থাকার জন্য মধুমিতা সরকারের সম্পর্ক ভেঙে যায়। সে সম্পর্কে তিনি সরব হয়েছেন। তবে যৌনতা সম্পর্কে ঐদিন খোলামেলাভাবে উত্তর দেওয়াতে অনেকটাই পরিস্কার হয়ে যায় এই ঘটনা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button