হতরসের ধ’র্ষ’করা কী কঙ্গনার ভাই? ধ’র্ষ’ণকা’ণ্ডে চুপ থাকায় অভিনেত্রীকে একহাত নিলেন সঞ্জয় রাউত

নিজস্ব প্রতিবেদন-ধ-র্ষ-ণ কাণ্ডের চুপ কেন কঙ্গনা রানাউত প্রশ্ন আসছে স্বজোরে। উত্তরপ্রদেশে কিছুদিন আগে ঘটে যায় ১৯ বছর এক দলিত মেয়ের সাথে নিশংস ,নক্কারজনক ঘটনা। প্রথমে ধর্ষণ ও পড়ে খুনের চেষ্টা । অবশেষে ১৪ দিন পর মৃত্যু ঘটে ওই তরুণীর । এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তাল গোটা দেশ। যখন গোটা দেশ একই সুরে কথা বলছে ,প্রশ্ন তুলছে যোগী আদিত্যনাথ সরকারের বিরুদ্ধে তখন কঙ্গনা রানাউত যাকে কিনা বিভিন্ন সময় সরব হতে দেখা যায় বিভিন্ন প্রতিবাদী সুরে সেই কঙ্গনা চুপ কেন ?

এর পাশাপাশি সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলার সময় খবরের শিরোনামে দখল করে রেখেছিলে কঙ্গনা রানাউৎ। একের পর এক পাল্টা জবাব ,কটাক্ষ এবং বিতর্কিত মন্তব্যের মাধ্যমে রীতিমতো লাইমলাইটের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল এই বলিউড কুইন । এর পাশাপাশি। মহারাষ্ট্র অধ্যুষিত অঞ্চল বলেছিলেন তিনি । তার সাথে সাথে তিনি বলেছিলেন যে মহারাষ্ট্রের শাসন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে এখানে কারুর কোন স্বাধীনতা নেই । শিবসেনার উপর তুলেছিলেন প্রশ্ন । এবার সেই শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত প্রশ্ন তুললেন কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে ।

যদিও ঘটনার প্রথমদিকে কঙ্গনা রানাওয়াত কে উত্তরপ্রদেশের এই ঘটনা নিয়ে সরব হতে দেখা গেছে অল্পস্বল্প তবে অন্যান্য বাকি সব কিছু ক্ষেত্রে অত বেশি ভাবে সক্রিয় হন নি এবার। তিনি সেখানে বেঁধেছে প্রশ্ন । উত্তর প্রদেশ এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তিনি বলেছেন যোগী আদিত্যনাথ সরকারের ওপর পুরোপুরি বিশ্বাস আছে খুব তাড়াতাড়ি যেন দোষীরা শাস্তি পায় । ব্যাস এখানেই থেমে যায় তার প্রতিবাদ সুর। সেখানেই প্রশ্ন সঞ্জয় রাউত এর ।

তিনি বলেন এই নক্কারজনক ঘটনাতে যখন গোটা দেশ উত্তাল তখন যোগী আদিত্যনাথ সরকারের বিরুদ্ধে বা উত্তরপ্রদেশে সরকারের বিরুদ্ধে কোন মন্তব্য করছেন না কেন কঙ্গনা রানাউৎ? কেন কোনো প্রশ্ন করছেন না তাদের বিরুদ্ধে ? তাহলে কি ধর্ষণে অভিযুক্তরা কঙ্গনা রানাউতের ভাই ? ।

এর পাশাপাশি গত পরশু রিপোর্ট AIIMS অনুযায়ী সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলার একটি প্রাথমিক বক্তব্য পেশ করেন যে ডক্টর সুদীপ্ত গুপ্তা । তিনি বলেন যে এই মৃত্যু শুধুমাত্র একটি আত্মহত্যা এখানে কোন আলাদা চক্রান্ত নেই বা খাবার খাবার সাথে বিষ মিশিয়ে মারার কোন প্রবণতা নেই বা ছিল না । এই ঘটনা সামনে আসার পর শিবসেনা সরকার বলেছিলেন যে মুম্বাই পুলিশ বহুদিন আগে এই একই কথা বলেছিল কিন্তু তখন তার বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলা হয়েছিল এখন রীতিমত সেই উক্তি ঘুরে ফিরে এলো । তাদের উচিত ক্ষমা চেয়ে নেওয়া ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button