শুধু সময়ের অপেক্ষা, আকাশে দেখা যাবে নীল রঙের বিরল চাঁদ, কবে দেখা যাবে? কারা কারা দেখতে পাবে? রইলো বিস্তারিত

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সিনেমাতে আমরা দেখে এসেছি চাঁদ কিভাবে একটা বড়সড় ভূমিকা পালন করে একটি প্রেম বা রোমাঞ্চকর গল্পে। বা ধরুন চলতি কথাতে কারোর ব্যর্থতা বা আস্পর্ধা বোঝাতেও আমরা কখনো কখনো ব্যবহার করে থাকি চাঁদকে । যেমন “বামন হয়ে চাঁদে হাত দেওয়ার শখ?”

অথবা ধরুন প্রেমিকাকে তার রূপের বর্ণনা বোঝাবার জন্য অনেক সময় গল্পে বা বাস্তবে প্রেমিক ব্যবহার করে থাকে চাঁদকে । বা কোনো শিশুকে ঘুম পাড়ানোর জন্য চাঁদের গল্প শোনান মায়েরা । অতএব এর থেকে বোঝা যাচ্ছে বাস্তব জীবন হোক বা গল্পের জীবন চাঁদ একটা বড় ভূমিকা পালন করে আমাদের জীবনে ।

কিন্তু কেমন লাগবে যদি সেই চাঁদের রং পাল্টে নীল হয়ে যায় ? তাহলে কি সে একই গুরুত্ব থাকবে এই নতুন চাঁদের । এ ও কি সম্ভব ? আজ্ঞে হ্যাঁ ,এমনটাই জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন চলতি মাসে অর্থাৎ অক্টোবরে দুটি পূর্ণিমা আছে প্রথম পূর্ণিমা ০১ অক্টোবর এবং দ্বিতীয় পূর্ণিমা ৩১ শে অক্টোবর । দ্বিতীয় পূর্ণিমা অর্থাৎ ৩১ শে অক্টোবর দেখা যাবে এই বিরল ঘটনা অর্থাৎ নীল রঙের চাঁদ ।

বিজ্ঞানীরা এও জানিয়েছেন যে ৩০ বছর পর ঘটছে এইরকম বিরল ঘটনা । গোটা পৃথিবী বাসি একসাথে দেখতে পারবে এই বিরল ঘটনা। ২০০১ সালে একটি ঘটনা ঘটে এবং ২০২০ সালে আবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি অর্থাৎ বিজ্ঞানীরা মনে করছেন প্রতি ১৯ বছর অন্তর অন্তর এই ঘটনার সম্মুখীন হতে পারে দেশবাসী বা পৃথিবীবাসী। তবে সমগ্র পৃথিবীবাসী একসাথে দেখার এই ঘটনা ৩০ বছর আগেই ঘটেছে । সারা পৃথিবী জুড়ে এই ঘটনা দেখে ছিল মানুষ ১৯৪৪ সালে ।

বিজ্ঞানীরা মনে করছেন ২০২০ পর ফের এই ব্লু মুন দেখা যেতে পারে ২০৩৯ এ । এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য সবার সামনে আসতেই, সবাই আগ্রহের সাথে অপেক্ষা করছে এই বিরল রঙের চাঁদটিকে দেখতে । তাহলে কি এবার থেকে গল্প বা বাস্তবে নতুন চাঁদ এর আগমন ঘটতেও পারে?
প্রশ্ন তো একটা থেকেই যায় কৌতুকের বসে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button