আর মাত্র কিছুক্ষন! নদীয়া, মালদা সহ এই সাত জেলার আগামী 48 ঘণ্টার আবহাওয়া নিয়ে বড়ো আপডেট দিলো মৌসম ভবন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমরা সিনেমাতে প্রায় দেখে থাকি যে কোন রোমান্টিক দৃশ্য হলে বৃষ্টির আবির্ভাব ঘটে। অর্থাৎ বৃষ্টি যেন প্রেমের মরশুম আনে । কিন্তু সব বৃষ্টি প্রেম মানে না । কিছু কিছু বৃষ্টি দুশ্চিন্তা ও আনে। তার ঘটনা প্রমাণ আমরা এর আগে বহুবার পেয়েছি ।এখনও পাচ্ছি ।হয়তো ভবিষ্যতে পাবো ।

ইতিমধ্যে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর উত্তরবঙ্গের দিকে হওয়া বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছিল। এবং টানা পাঁচ দিন ধরে বৃষ্টি হয়েছে উত্তরবঙ্গ জুড়ে । রীতিমতো সেই বৃষ্টিকে সামলাতে নাজেহাল রাজ্যবাসী। মূলত বঙ্গোপসাগরের উপরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের ধরুন এই বৃষ্টি। এমনটা জানিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

এই অতিমারির কবলে পড়ে আর্থিক ক্ষ-তি-গ্র-স্ত হয়েছে বহু মানুষ এর জীবন। তারপর আবার এই বৃষ্টি যেন উত্তরবঙ্গে এক অভিশাপ হয়ে দাঁড়ালো । বেড়েছে নদীর জল স্তর ।কোথাও কোথাও আবার নেমেছে ধস । তবে পূর্বাভাস আগে থেকে থাকার দরুন তেমন কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। স্থানীয় এবং প্রশাসন লাগাতার কাজ করে গেছে উদ্ধার কাজে। অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মানুষজনদের । তবে এর হাত থেকে রেহাই পায়নি দক্ষিণবঙ্গও। কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি দেখা মিলেছে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর তরফ থেকে জানানো খবর অনুযায়ী কলকাতাতে আজকে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। জলীয় বাষ্প বেশি থাকার দরুন অস্বস্তিকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে । আর্দ্রতা ৯৫ শতাংশের ঘরে। তবে বৃষ্টি দেখাও মিলেছে কিছু কিছু জায়গায়। আমরা এই মুহূর্তে আপনাদের সামনে তুলে ধরব রাজ্যের উত্তর এবং দক্ষিণ এর আকাশের খবর ।

প্রথমে আমরা চলে যাব উত্তরের আকাশের দিকে । বেশ কয়েকদিন যাবৎ উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে। জলমগ্ন একাধিক এলাকা । ধ্বস নেমেছে বিভিন্ন পাহাড়ের পাদদেশে । দার্জিলিং ,কালিম্পং কোচবিহার, জলপাইগুড়ি সহ বিভিন্ন অঞ্চলে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে। এবং মেঘলা আকাশ রয়েছে এই মুহূর্তে। তবে এই বৃষ্টির জন্য বেশ কিছুটা তাপমাত্রার ঘাটতি হবে এমনটা জানাচ্ছে আলিপুর আবহা দপ্তর ।

দক্ষিণের পরিস্থিতি:-বাংলার উত্তরের পাশাপাশি দক্ষিণেরও বেশ কিছু এলাকায় চলেছে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি। দক্ষিণ বঙ্গে সেভাবে ভারি বৃষ্টির কোন পূর্বাভাস নেই। তবে আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস অনুযায়ী, এবছরের মত এই মাসেই ভারত থেকে বিদায় নেবে বর্ষা।

বঙ্গোপসাগরের উপর তৈরি হওয়া নিম্নচাপের দরুন রীতিমতো কয়েকদিন ধরে ঘনীভূত হচ্ছিল নিম্নচাপ। শরতের মেঘ যেন ঠেকে যাচ্ছিল কালো আকাশে । তবে সেসব রেস কাটিয়ে আপাতত ঝলমলে আকাশের দিকে আবহাওয়া। মিলেছে সূর্যের দেখাও ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button