যু’দ্ধক্ষেত্রে ভারতীয় সেনারা পাবেন আগাম স’তর্কতা, সেনাদের সুরক্ষার জন্য রোবো হেলমেট বানিয়ে নজির গড়লো ভারতীয় কন্যা অঞ্জলি শ্রীবাস্তব

সীমান্তে রয়েছে ভারতের দুই শত্রুদেশ চিন এবং পাকিস্তান। বারবার‌ই আগ্রাসী মনোভাবের হদিশ আসছে তাদের দিক থেকে। তাই বছরের পর বছর ভারত নিজের অ-স্ত্র সম্ভারকে করেছে আরো উন্নত এবং শক্তিশালী। ভারতের সেনাবাহিনী বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ শক্তিশালী সেনাবাহিনী। ভারতের সাথে বিশ্বের তাবড় তাবড় শক্তিশালী দেশগুলোর সুসম্পর্ক রয়েছে। যেমন, আমেরিকা, রাশিয়া, জার্মানি, জাপান, ইজরায়েল প্রভৃতি।

চিন-ভারত সীমান্তে যু-দ্ধ পরিস্থিতিতে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে আমেরিকা, রাশিয়া, ইজরায়েল। যু-দ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ভারতকে অত্যাধুনিক ‘এক্সক্যালিবার’ দেওয়ার জন্য তৈরি আমেরিকা। এই অ-স্ত্রের গোলার পাল্লা হল ৪০ কিমি। এই গো-লা ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ব্যবহৃত M77 ULTRA LIGHT হাউৎজার সহ বিভিন্ন কা-মা-নের সাথে অনায়াসে ব্যবহার করা যাবে।এর আগেও ভারতকে আটটি অ্যাপাচে হেলিকপ্টার বিক্রি করেছিলো আমেরিকা।

এই AH-64E অ্যাপাচে কপ্টার যথেষ্ট শক্তিশালী অ্যা-টা-ক হেলিকপ্টার। বিশ্বের এক নম্বর অ্যা-টা-ক কপ্টার এটি। একটা ফাই-টার প্লেনের মতোই এটাও অনেক কিছু অসাধ্য সাধন করতে পারে। এছাড়াও ভারতের কাছে রয়েছে চিনুক হেলিকপ্টার। এটি মূলত মালবাহী ও সেনাদের, রসদ নিয়ে যাওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়। অনেক দূ-র্গ-ম এলাকায় পৌঁছে যেতে পারে এই চিনুক কপ্টার। আকারেও এটি বেশ বড়ো। অনেকজন সেনা পরিবহন করতে পারে এটি।

এবার বেনারসের এক কন্যা দেশের 74 তম স্বাধীনতা দিবসের দিন এক দারুন রক্ষাকবচ তৈরি করল ভারতীয় সেনাদের জন্য। তিনি তৈরি করেছেন সেনাদের সুরক্ষার জন্য একটি অত্যাধুনিক হেলমেট যার নাম দিয়েছেন রোবো হেলমেট। অশোকা ইনস্টিটিউটের টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এর ছাত্রী তিনি। জানা গিয়েছে যু-দ্ধক্ষেত্রে সেনা জও-য়ান দের ব্যাপক সাহায্য করবে এই হেলমেট।

এই হেলমেটে থাকা রেডিও সিগন্যাল এর মাধ্যমে খুব সহজেই সৈনিকদের গতিবিধি এবং তাদের অবস্থান সম্পর্কে জানা যাবে। হেলমেট থেকে বের হওয়ার রেডিও সিগন্যালের মাধ্যমে সৈনিকদের অবস্থান সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে। এছাড়াও ওয়ারলেস ট্রিগার এর মাধ্যমে এই হেলমেট ফা-য়া-র করতেও পারদর্শী। কেউ যদি এই হেলমেট পরিহিত সেনার দিকে লক্ষ্য করে বো-মা অথবা গু-লি ছোঁড়ে ভুলে এই হেলমেট সৈনিকদের অনেক আগে থেকেই সাবধান করে দেবে।

জানা গিয়েছে 50 মিটার এর মধ্যে 360 ডিগ্রি পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকা হেলমেটের নাগালের মধ্যে থাকবে। এই বিশেষ হেলমেট বানিয়েছেন অঞ্জলি শ্রীবাস্তব। তাঁর এই বিশেষ কৃতিত্বের জন্য তাঁকে সম্মানিত করা হবে। সমস্ত ভারতবাসী এই কন্যার বিশেষ কৃতিত্বের জন্য তাঁর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button