ফ্রিজে কাঁচা মাছ রেখেও স্বাদ অটুট রাখার গো’পন সহজ দুর্দান্ত পদ্ধতি, কিভাবে? জানলে আপনিও অবাক হবেন!

বর্তমানে গৃহস্থালির রান্নাঘরে ফ্রিজ এসে গিয়ে প’চনশী’ল খাবার গু-লিকে ন’ষ্ট হওয়ার হাত থেকে বাঁচিয়েছে। কিছু কিছু খাবার অন্তত কয়েক দিন ফ্রিজে রেখে খাওয়া যায়। বিশেষ করে অনেকেই ডিপ ফ্রিজে কাঁ’চা মাছ রাখেন। কারন অনেকেই এক সপ্তাহের বাজার আগাম করে রাখেন। কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় কিছুদিন ফ্রিজে মাছ রেখে দিলে মাছের স্বা’দ অনেকটাই ন’ষ্ট হয়ে যায়। তারপরে মাছ রান্না করে খেলে সেটি বেশি গন্ধ যুক্ত হয় এবং শুকনো লাগে।

তাই অনেক সময় ফ্রিজে রাখা মাছ ফেলে দিতে হয়। যার ফলে গৃহকর্তাকে লো’কসা’নের মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু জানেন কি ফ্রিজের মধ্যে মাছের স্বাদ এক বিশেষ পদ্ধতিতে বজায় রাখা যায়। কিন্তু কিভাবে? আসুন জেনে নিন।এমনিতেই দেখা গিয়েছে যারা সপ্তাহে অন্তত একদিন মাঝখান তাদের স্ট্রো’ক হওয়ার সম্ভাবনা 13% কম। এছাড়াও মাছের মধ্যে থাকে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এ্যাসিড যা হৃদ’পি’ণ্ড কে র’ক্ষা করে।

চর্বি জাতীয় মাছ গুলি হল এই ওমেগা 3 ফ্যাটি এ্যাসিড এর এক ভরপুর উৎস। এই ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এ্যাসিড ডা’য়া’বেটিস, মান’সিক চা’প, বাত এবং ক্যা’ন্সা’রের বি-রু-দ্ধে লড়াই করে। সামুদ্রিক পোনা মাছ , ম্যাকারেল, স্যামন এবং আরো অন্যান্য মাছের মধ্যে বেশি পরিমাণে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এ্যাসিড থাকে।তবে গ’র্ভব’তী সহ প্র’সূতি নারী এবং যেসব নারী মা হবার পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছেন তাদের কে মেথিল’মার্কারি যুক্ত মাছ খাওয়া থেকে সা’বধা’ন থাকতে হবে।

এই ক্ষ-তিক-র উপাদান বেশি মাত্রায় পাওয়া যায় টুনা মাছ, তলোয়ার মাছ, হাঙ্গর, টাইলফিস, ম্যাকারেল , প্রভৃতি মাছে। এছাড়াও চাষ করা মাছে অতিরিক্ত মাত্রায় কীটনাশক এবং অন্যান্য বিষাক্ত উপাদান গুলি উপস্থিত থাকে। সবসময় নি-রা-প-দ মাছ হলো প্রাকৃতিক মাছ।

মাছের তাজা স্বাদ ফ্রিজের মধ্যে বজায় রাখতে হলে নিজ থেকে মাছটি বের করে স্বাভাবিক উষ্ণ-তায় আনুন। তারপর মাছের পিস গু-লি একটি বড় বাটিতে দুধ মেশানো জলে প্রায় 30 মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর স্বাভাবিক ভাবে ধুয়ে নিয়ে রান্না করলে দেখা যাবে মানুষের সেই স্বাদ অটুট এবং গন্ধ‌ও পাবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button