কেমন রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি? টুইট করে জানালেন তার ছেলে!

ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় গত ১০ ই আগস্ট দিল্লির সেনা হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালে ভর্তি করার পরে তাঁর মস্তিষ্কে আবার রক্তক্ষরণের বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপরেই প্রণব বাবুর সার্জারি করা হয়। তারপর জানা যায় যে তিনি করোনাতেও আ-ক্রা-ন্ত। তিনি ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছিলো । শারীরিক অবস্থা তাঁর বেশ স-ঙ্ক-টজনক বলে জানা গিয়েছিলো। দিল্লির আর্মি হাসপাতাল গত পরশু পর্যন্ত প্রণববাবুর অবস্থা স-ঙ্ক-টজনক বলেই জানিয়েছিলো।

জানা গিয়েছে গত সোমবার অ-স্ত্রোপ-চা-রের পর তিনি অল্প হলেও চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছিলেন। কিন্তু গত মঙ্গলবার দুপুর থেকে তাঁর অবস্থা আরো খারাপ হয়ে গিয়েছিলো। গত মঙ্গলবার দুপুর ৩ টে থেকেই চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছিলেন না তিনি। বুধবার সকালে তাঁর স্বাস্থ্য বুলেটিনেও প্রকাশিত হয় যে তিনি পুরোপুরি ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন। কিন্তু এর পরে আবার হঠাৎই ছন্দপতন। জানা গিয়েছিলো যে শারীরিক অবস্থার খুবই অবনতি ঘটেছে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের।

জানা গিয়েছে তিনি গভীর কোমায় চলে গিয়েছেন। এমনিতেই তিনি ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন। দিল্লির আর্মি হাসপাতাল জানিয়েছে যে প্রাক্তন ভারতীয় রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় গভীর কোমায় চলে গিয়েছেন। ডাক্তাররা সর্বতোভাবে চেষ্টা করে চলেছেন তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটানোর। গতকাল স্বাধীনতা দিবসের দিন প্রণববাবুর ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে, তাঁর শারীরিক অবস্থা এক‌ই রয়েছে।

তাঁকে ভেন্টিলেটর সাপোর্টেই রাখা হয়েছে। ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটানোর প্রবল চেষ্টা করে চলেছেন ডাক্তাররা। ছেলে অভিজিৎ এবং মেয়ে শর্মিষ্ঠা তাঁদের পিতা প্রণব বাবুর জন্য ভক্তদেরকে প্রার্থনার অনুরোধ জ্ঞাপন করেছেন।আজ সকাল দশটা নাগাদ প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ছেলে অভিজিত মুখোপাধ্যায় ট্যুইট করে জানিয়েছেন যে, তিনি গতরাতে বাবাকে দেখে এসেছেন। তাঁর পিতা আগের থেকে কিছুটা সুস্থ আছেন।

তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে প্রণব বাবুর ক্লিনিক্যাল প্যারামিটার গুলি স্থিতিশীল রয়েছে। কিন্তু চিন্তার বিষয় এটাই প্রণব বাবু একাধিক মর্বিডিটি রয়েছে। পেশাদার বিশেষজ্ঞদের একটি দল নিরন্তর নজর রেখে চলেছে প্রণব বাবুর শারীরিক পরিবর্তনের উপর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button