মধ্যবিত্তের জন্য বড় সুখবর! দারুন কম সুদে হোম লোনের ব্যবস্থা, সহজে করুন স্বপ্নপূরণ.. বানান স্বপ্নের বাড়ি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-পুজোর এই মরসুমে অনেকেই অনেক কিছু কেনাকাটার চিন্তাভাবনা করে থাকে। সেই তালিকার মধ্যে থেকে থাকে নিজের স্বপ্নের বাড়ির । অর্থাৎ প্রত্যেকের মনে যে স্বপ্নের একটি বাড়ি থাকে সেই বাড়িটি এই বিশেষ সময়ে অনেকেই কিনতে চান । কিন্তু একদিকে পূজার খরচ অন্যদিকে আর্থিক সমস্যার জন্য তা কেনা হয়ে ওঠে না। তাই আপনাদেরকে সবাইকেই ছুটতে হয় ব্যাংক লোনের দিকে।

আর এসব বিষয়ে ব্যাংক একদম এক পা উঠিয়ে আছে । অর্থাৎ আপনাকে লোন দিতে সর্বদা প্রস্তুত ব্যাংক । কারণ সেখানে আপনাকে মোটা ব্যাংকের লোন যোগাতে হবে যা ব্যাংকের ই লাভ। কিন্তু কোন ব্যাংক কত কম সুদে ঋণ দিচ্ছে তাও আপনার জেনে নেওয়া দরকার। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক এই মুহূর্তে কোন ব্যাংক কত পরিমান সুদের হারে ঋণ দিচ্ছে ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে এই তালিকা ২০ বছরের মেয়াদে ৭৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে চলতি বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পাওয়া হিসেবের ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে। প্রথমে দেখে নেওয়া যাক ব্যাঙ্কগুলোর প্রস্তাব! সেক্ষেত্রে ঋণমূল্য ৭৫ লক্ষ ধরেই দেখা যাক-

১) ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া:- এই ব্যাংক প্রতি বছরে সুদের হার ৬.৮৫ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৭,৪৭৪ টাকা ।

২) সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া :- প্রতি বছরে সুদের হার ৬.৮৫ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৭,৪৭৪ টাকা ।

৩) কানাডা ব্যাঙ্ক :- প্রতি বছরে সুদের হার ৬.৯০ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৭,৬৯৮ টাকা ।

৪)পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক:- প্রতি বছরে সুদের হার ৬.৯০ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৭,৬৯৮ টাকা।

৫)ইউনিয়ন ব্যাংক:- প্রতি বছরে সুদের হার ৬.৯৫ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৭,৯২৩ টাকা।

এর পাশাপাশি আপনি যদি হাউসিং ফাইন্যান্স এর দ্বারস্থ হন তবে সে বিষয়ে আপনার জ্ঞান থাকা জরুরি ।
১)এলআইসি হাউসিং ফাইন্যান্স:- প্রতি বছরে সুদের হার ৭.০০ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৫৮,১৪৭ টাকা ।
২) বাজাজ ফিনসার্ভের :- এই ক্ষেত্রে প্রতি বছরে সুদের হার ৭.৫০ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৬০,৪১৯ টাকা।
৩) এএভিএএস ফিনান্সারের:- এই ক্ষেত্রে প্রতি বছরে সুদের হার ৮.০০ শতাংশ, ইএমআই দিতে হবে ৬২,৭৩৩ টাকা।

উপরের তথ্যগুলো থেকে আপনি কিছুটা ধারণা করতে পারবেন কোন ব্যাংক এবং কোন হাউসিং ফাইন্যান্স কত কম সুদে গৃহ লোন দিতে চলেছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button