মধ্যবিত্তের জন্য বড় সুখবর! সোনা নিয়ে বড় খুশির খবর দিলো RBI, সাথে পাবেন মোটা টাকা সুদও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-কথাতে আছে স্বাস্থ্যই সম্পদ, কিন্তু বাস্তবে স্বাস্থ্যর সাথে বলা বাহুল্য সোনা ও সম্পদ বলা যেতেই পারে ।বর্তমান যুগ সেটাই দাবি রাখে। কাজে সোনা রাখা বা জমানো একটা ফ্যাশন হয়ে গেছে ।কিন্তু কোথায় রাখা যায় এত সোনা? নিজের বাড়ির আলমারিতে? সেখানে নিরাপত্তার কারণে ভুগবেন আপনি। তাহলে কোথায় রাখা যায় ব্যাংকের লকারে? সেখানে রাখলেও বাড়তি টাকা গুনতে হবে বছরের শেষে আপনাকে ।

সব জিনিসের গুরুত্ব যখন ধীরে ধীরে কমে আসছে বর্তমান বাজারে ,সোনা কিন্তু নিজের বাজার ঠিকঠাক ধরে রেখেছে ।ক্রমাগত উপর দিকে উঠেছে সোনার দাম। তাই দামি সোনাকে বাড়িতে না রেখে প্রকল্পের আওতায় রাখলে মিলতে পারে সুদ, এমনটাই জানানো রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

অনেকে বাড়ির আলমারিতে নিরাপত্তার কারণে সোনা রাখতে ভয় পান বা ব্যাংকের লকারে রাখলেও বেশি টাকা গুনতে হয় বলে লকারে রাখেন না। কিন্তু সেইসব সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে RBI নিয়ে এলো একটি বিশেষ প্রকল্প যার আওতায় আপনি সোনা রাখলে পেতে পারেন বছরের বিশেষ সুদ । হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন। পেতে পারেন সুদ ।

আরবিআই জানাচ্ছে, ২০১৫ সাল থেকে এই প্রকল্প চালু হয়েছে। এই স্কিমের উদ্দেশ্য সাধারণ মানুষের বাড়িতে অহেতুক পড়ে থাকা সোনা কাজে লাগানো ও মানুষকে সুদের হার দেওয়া। যে কোনও ভারতীয় এই স্কিম কাজে লাগাতে পারেন। RBI এর এই গোল্ড মনিটাইজেশন স্কিম শুধুমাত্র যে আপনাকে সুদ দেবে তা নয় তার সুরক্ষা দিয়ে আপনাকে ভরসা যোগাবে। ঠিক অনেকটা ব্যাংকে রাখা ফিক্স ডিপোজিট এর মতন ।শুধু এখানে টাকার বদলে রাখতে হবে সোনা।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানাচ্ছে, যে ম্যাচুরিটির সময়ে আপনি পাবেন এর সম পরিমাণ সোনা। মনে রাখতে হবে ম্যাচুরিটির সময়ে সোনার যা দাম থাকবে, তাই দিয়েই নির্ধারিত হবে বিনিয়োগকারীর প্রাপ্য। এর সঙ্গে আপনি ব্যক্তিগত বা যৌথভাবে এই প্রকল্পের আওতায় আসতে পারেন। সর্বনিম্ন ৩০ গ্রাম সোনা দিয়ে চালু করা যেতে পারে এই প্রকল্প।

এই স্কিমের আওতায় রয়েছে তিন ধরনের সুবিধা শর্ত টার্ম , মিডিয়াম টার্ম এবং লং টার্ম ডিপোজিট। শর্ট টার্ম এর ক্ষেত্রে ১-৩ বছর পর্যন্ত , মিডিয়াম এর ক্ষেত্রে থাকবে ৫ -৭ বছরের জন্য এবং লং টার্ম ডিপোজিট এর জন্য থাকবে ১০-১৫ বছরের জন্য বিনিয়োগের ব্যবস্থা। তবে গ্রাহক বিনিয়োগের মধ্যবর্তী সময়ে চাইলে তুলে নিতে পারেন সোনা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button