SBI গ্রাহকদের জন্য বড় সুখবর, এবার থেকে প্রত্যেক গ্রাহকেরা পাবেন এই ছয় বিশেষ সুবিধা, খুশি সকল গ্রাহকেরা!

যখন একটি নতুন বছর শেষ হয় আর তার সাথে আমরা পিছনে ফেলে আসি অনেক দুঃখ ,কষ্ট , অনেক কিছু । আর হাসি মুখে বরণ করে নিয় নতুন বছরকে। সেই একই ভাবে কিন্তু আমরা ২০২০ সালকে বরণ করে নিয়েছি। কিন্তু আমরা খুব খুব দুর্ভাগ্যবান বছর শুরু না হতেই অতি বড়ো মহামারীর প্রকোপ সারা বিশ্ব জুড়ে ।
বর্তমানে এই অতীব মহামারীর কবলে সাধারণ মানুষ জর্জরিত। তেমনি খুব খুব ক্ষতিগ্রস্ত আর্থিক দিক থেকে । আর এই আর্থিক ক্ষতির কারণে বহু মানুষের নানান কর্মসূচী নষ্ট হয়েছে।অনেকেই নতুন কিছু চিন্তা ভাবনার মধ্য দিয়ে শুরু করেছেন । বাড়ি ,গাড়ী কিংবা অন্য কিছু অনেকের কেনার ভাবনা ছিল তা কিন্তু আর সম্ভব হয় নি। আবার অনেকে বাড়ি বানানো শুরু করে দিয়েছেন সেটা কিন্তু সেই মাঝপথেই স্তব্ধ।
মানুষের মুখে মুখে বহুল প্রচলিতদেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক SBI গৃহঋণের ক্ষেত্রে ৬টি সুবিধার কথা ঘোষণা করলো। আর সেই কথা মাথায় রেখে আমাদের দেশের সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে।

১) স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে বর্তমানে আর গৃহঋণের জন্য আবেদন করলে প্রসেসিং ফি কাটা হবে না।
২) এছাড়াও গৃহঋণে সুদের উপর দেওয়ার ঘোষণা করেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। যে সমস্ত গ্রাহকদের ৩০ লাখের বেশি এবং এক কোটির কম ঋণে সিভিল স্কোর ভালো আছে তারা সুদের উপর ০.১ শতাংশ ছাড় পাবেন।

৩) এর পাশাপাশি ডিজিটাল লেনদেনের কথা মাথায় রেখে YONO অ্যাপের মাধ্যমে যে সকল গ্রাহকরা ঋণের জন্য আবেদন করবেন তাদের জন্য ০.৫% ছাড় রয়েছে।

৪) রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার রেপো রেট কমে যাওয়ায় সুদের হার অনেকটা কমেছে। সেই মোতাবেক অন্যান্য ব্যাঙ্কের মতো স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়াও গ্রাহকদের বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। বর্তমান রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া রেপো রেট রেখেছে ৪ শতাংশ।

৫) SBI এর সমস্ত গৃহঋণ এক্সটার্নাল বেঞ্চমার্ক লিঙ্কড। যা বর্তমানে ৬.৬৫%।

৬) গৃহঋণের ক্ষেত্রে বর্তমানে চাকুরীজীবিদের সুদের হার ৬.৯৫% থেকে ৭.৪৫%। অন্যদিকে সেলফ এমপ্লয়েডদের জন্য সুদের হার ৭.১০% থেকে ৭.৬০%।
Sbi তরফ থেকে এইরকম ঘোষণার পর সাধারণ মানুষ থেকে মধ্যবিত্ত সবাই কিন্তু খুব খুব খুশি কারণ তারা নিজেদের যে স্বপ্ন গুলো কিন্তু আস্তে আস্তে পূরণ করতে পারবেন। Sbi এই ঘোষণার পর গৃহঋণ নিতে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা সবথেকে বেশি লাভবান প্রসেসিং ফি না নেওয়াই। কারণ এক্ষেত্রে ০.৪০% লাভবান হবেন ঋণগ্রহীতারা বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এর পাশাপাশি বিশেষজ্ঞরা এটাও মনে করছেন যে গৃহঋণ নেওয়ার সুবর্ণ সুযোগ এই অফার চলাকালীনই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button