ভারতবাসীর জন্য বড় সুখবর- ভারতীয় বিজ্ঞানীর দুর্দান্ত আবিষ্কার, এবার মাত্র পাঁচ টাকায় 40 কিমি যাবে বাইক-স্কুটি!

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তির উন্নতি ঘটছে এবং নতুন নতুন জিনিস আবিষ্কার হচ্ছে । এভাবে পৃথিবীর হয়ে উঠছে গতিময় । নিত্যদিন আমরা নতুন নতুন ভাবনা ও প্রযুক্তির সাথে পরিচিত হচ্ছি, যা আমাদের কল্পনার অতীত। আর এভাবে বিজ্ঞানের আশীর্বাদে প্রযুক্তির উন্নতি ঘটছে এবং আমাদের জীবনযাত্রা হয়ে উঠেছে আরো সহজ এবং বিলাসবহুল।

প্রযুক্তির মাধ্যমে যে শুধুমাত্র মানুষের জীবন সহজ সরল হচ্ছে তাই নয় সাধারণ ও মধ্যবিত্ত মানুষদের স্বপ্ন পূরণে ক্ষেত্রে সমান অবদান রাখছে উন্নত প্রযুক্তি।সম্প্রতি বাজারে দ্রুতগতিসম্পন্ন বাইক এসেছে ,যার খরচ সকলের সাধ্যের মধ্যে। আর সব থেকে বড় ব্যাপার হল এটাই যারা এতদিন পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধির কথা ভেবে বাইকের সখ থাকলেও পিছিয়ে আসতেন তাদের জন্য রয়েছে বড় সুখবর ; কারণ এই বাইকটি ক্ষেত্রে পেট্রোলের কোন খরচ নেই; হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন, এই বাইক চলবে হাওয়াতে পেট্রলে নয় ।

এমন একটি যুগান্তকারী আবিষ্কার করেছেন লখনউয়ের এক বিজ্ঞানী। ইতিমধ্যেই এটি পরীক্ষায় সফল হয়েছে।জানা গেছে, এই বিজ্ঞানী বহুবছর আগে থেকেই এরকম আবিষ্কারের কর্মে ব্রতী হয়েছিলেন, আজ থেকে প্রায় নয় বছর আগে তিনি এয়ার ইঞ্জিন আবিষ্কার করেছিলেন। এই ইঞ্জিনের খরচ সাধ্যের মধ্যে। জানা গেছে অ্যালুমিনিয়ামের সিলিন্ডার বানিয়ে এয়ার বাইকে তা লাগানো হয়েছে এবং এতে পাঁচ টাকার হাওয়া ভরলে 40 কিলোমিটার পর্যন্ত যাওয়া যাবে ।

এই গাড়িটি এক ঘণ্টায় 70 থেকে 80 কিলোমিটার বেগে চলতে পারবে।এই বাইকটি নির্মাণের পিছনে ভারত রাজ সিং এর গুরুত্ব অপরিসীম। বর্তমানে তিনি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে অ্যাসোসিয়েট ডিরেক্টর পদে রয়েছেন। তিনি তার এই আবিষ্কার অনুমোদনের জন্য সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন।

বিজ্ঞানী ভারত রাজ সিং এর বক্তব্য অনুযায়ী, তারই যুগান্তকারী আবিষ্কৃত বাইক শুধুমাত্র সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের স্বপ্ন পূরণের সাথী নয় বরং পরিবেশবান্ধব ও বটে। কারণ এই ক্ষেত্রে যেমন জ্বালানি সাশ্রয় হবে অন্যদিকে গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর মত সমস্যা কম হবে। তিনি দাবি করেছেন তার আবিস্কৃত এয়ার বাইকটি বাজারে এলে 50% পরিবেশ দূষণ কম হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button