অন্তর থেকে, লুকিয়ে দরিদ্রদের সাহায্য যুবকের, দুস্থ ফুটপাথবাসীদের করলেন সাহায্য, ভাইরাল ভিডিও

মানুষ পৃথিবীর সবথেকে উন্নত প্রজাতি। আজ মানুষ সৃষ্টির ঊষাকাল থেকেই তার কর্মদক্ষতা এবং বুদ্ধির সাহায্যে পৃথিবীর সবথেকে উন্নত প্রজাতি হ‌ওয়ার ছাড়পত্র পেয়েছে। মানুষের মধ্যে মনুষ্যত্ব বোধ থাকলেই তবে সে প্রকৃত মানুষ। বড়ো বড়ো ডিগ্রি নিয়ে অনেক সুনাম অর্জন করেও কিন্তু প্রকৃত মানুষ হ‌ওয়া যায়না। যেমন বিভিন্ন মনীষী, শ্রীরামকৃষ্ণ, বিবেকানন্দ, গৌতম বুদ্ধ, প্রমুখেরা বিলাস বৈভবের জীবন ত্যা’গ করে দেশের মানুষের তথা সমস্ত জীবজগতের কল্যাণ কামনায় তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

তাঁরাও ছিলেন প্রকৃত মানুষ। তাই একজন মানুষের উচিৎ সমস্ত জীবজগতের গুরুত্ব কে সম্মান জানানো। একজন মানুষের উচিৎ অসহায়ের বি’প’দে সাহায্যের হাত বাড়ানো। সে মানুষ‌ই হোক না কেন আর পশুপাখিই হোক না কেন। মানুষের মানুষকেও যেমন সাহায্য করা উচিৎ তেমনি জীবজগতের পশুপাখিদের ও সাহায্য করা মানুষের একটি মানবিক ধর্ম। স্বামী বিবেকানন্দ বলে গিয়েছিলেন, “জীবে প্রেম করে যেই জন, সেইজন সেবিছে ঈশ্বর।”

এই কথাটির অন্তর্নিহিত অর্থ সকলেই জানেন। জীবের প্রতি প্রেম প্রতিটি মানুষের রন্ধ্রে রন্ধ্রে থাকা উচিৎ।এবার এক দারুন ভিডিও এসে উপস্থিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা দেখে আপনার মনে হবে সমাজের সত্যিই এখনো দেবতূল্য কিছু মানুষের উপস্থিতি রয়েছে। এখনো সমাজে কিছু মানুষ আছেন যারা প্রচার এর আড়ালে থেকে আ’র্ত, পী’ড়ি’ত, অ’সহা’য় মানুষদের সেবা করে চলেছেন।

ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে এক যুবক পথশিশু, সন্তান কোলে এক অসহায় মা, এক অসহায় বৃদ্ধা, এক অসহায় মানুষের পাশে খাবারের প্যাকেট রেখে হাঁটা দিচ্ছেন। কিছুক্ষণ পরেই দেখা যায় ওই পথশিশু এবং আরো অন্যান্য মানুষজন যাঁদের ওই যুবক খাবার দিয়েছিলেন, সেই খাবারের প্যাকেট থেকে খাবার বের করে সানন্দে মুখে তুলছেন। তাদের মুখে পরিতৃপ্তির অনাবিল হাসি আপনার মনে পরম শান্তির রেশের সঞ্চার ঘটাতে বাধ্য।

ওই যুবকের নাম বা পরিচয় কিছু জানা যায়নি কিন্তু তার এই মহান ক’র্ম’কা’ণ্ডে’র ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় এসে উপস্থিত হতেই সকলেই ধন্য ধন্য করেছেন ওই যুবককে। গৃহহীন, অসহায় মানুষগুলোর মুখে ওই যুবক দু মুঠো খাবার তুলে দিয়েছেন কিন্তু নিজে প্রচারের আলোকে আসেননি। ভিডিওটি দেখে প্রতিটি নেটিজেন আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছেন। জীব সেবা মানুষের এক মহান ধর্ম। যেমন ভগবানকে সেবা করা হয় সেই তুল্য পূণ্যের কাজ হল আপামর জীবকে সেবা করা। তাই এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ জনপ্রিয়তার সঞ্চার ঘটিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button