এবার থেকে পশ্চিমবঙ্গের এই জায়গায় চলবে ‘ওয়াটার অ্যাম্বুলেন্স’, ভিতরে থাকবে অক্সিজেন সিলিন্ডার, মাস্ক, স্যানিটাইজার!

বর্তমানে সারাদেশে তথা রাজ্যে ভয়া’বহ স’ন্ত্রা’সের জাল বিস্তার করেছে ক’রোনা। এই আবহে প্রা’ণ হারাচ্ছেন দেশের বহু মানুষ। চিকিৎসাব্যবস্থা আগের থেকে অনেকটা উন্নত হলেও বাংলার বহু প্রত্যন্ত জায়গায় এমনও রয়েছে যেখানে করো’না রোগীর চিকিৎসা যথার্থ সময়মতো হচ্ছে না। তার কারণ হলো যোগাযোগের অ’ভাব। এমন অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছাতে পারবে না যার দরুন সেই জায়গায় ক’রো’না রোগীদের হসপিটালে পৌঁছতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

শুধুমাত্র ক’রোনা রোগীদেরও নয়, অন্যান্য অ’সু’স্থ মানুষদের ও যথার্থ চিকিৎসা পেতে হসপিটালে পৌঁছাতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হচ্ছে। এ রকমই এক এলাকা হলো সুন্দরবন। বাংলার অন্তর্গত সুন্দরবন অঞ্চলের দ্বীপের বাসিন্দাদের যা তাদের জন্য নৌকার উপরই প্রধানত নির্ভর করতে হয়। ক’রোনা পরিস্থিতিতে সুন্দরবনের আ’ক্রান্ত’দের একদিক থেকে অন্য দ্বীপে স্থানান্তরিত করার জন্য প্রশাসনকে যথেষ্ট স’মস্যা’র সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

এর সুন্দরবনের দরুন বহু জায়গায় অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছাতে পারছে না। কারণ জল পরিবেষ্টিত বেশ কিছু এলাকায় অ্যাম্বুলেন্স গুলি কোনমতেই পৌঁছাবে না। তাই এবার প্রশাসন এক উল্লেখযোগ্য সি’দ্ধা’ন্ত গ্রহণ করেছে। জানা গিয়েছে সুন্দরবনের গোসাবা ব্লকের নদীগুলিতে স্পিড বোটের এর মাধ্যমে ওয়াটার অ্যাম্বুলেন্স চালানোর সি’দ্ধা’ন্ত নিয়েছে জেলা প্র’শাস’ন।

এই অ্যাম্বুলেন্সের ভিতর আধুনিক কেবিন বানানো হয়েছে। ক’রো’না রো’গীদের জন্য বিশেষভাবে নির্মিত এই কেবিনে থাকবে স্যানিটাইজার, অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং মাস্ক। সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অনায়াসে পৌঁছে যেতে পারবে এই ওয়াটার অ্যাম্বুলেন্সগুলি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button