পনেরো টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ? চওড়া হাসি উঠলো ক্রেতার মুখে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-করোনার জন্য রীতিমতো আর্থিক মন্দা তে ভুগছে দেশ । তার সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাজার দর ।বেড়েছে বহু জিনিসের দাম। প্রতিদিন বাড়ছে নিত্যনতুন অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের দাম ।তেমনই এক অত্যাবশ্যকীয় পণ্য আলু, পিয়াজ । এখন আলুর আকাশছোঁয়া দাম সাধারণ মধ্যবিত্ত ক্ষেত্রে ।

এর পাশাপাশি পেঁয়াজের দাম নাগালের বাইরে । কিন্তু এক আশ্চর্য ঘটনা। মাত্র ১৫ টাকা কেজিতে মিলছে পেঁয়াজ কি বলছেন মাত্র ১৫ টাকা কেজিতে মিলছে পেঁয়াজ ? সেই পেঁয়াজ কিনতে রীতিমতো ঠেলাঠেলি শুরু হয়ে গেছে লাইনে ।

যেখানে বাজারে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ সেখানে ওই ব্যবসায়ী কি ভাবে ১৫ টাকা কেজি পিঁয়াজ বিক্রি করছে ? প্রশ্ন অন্যান্য ব্যবসায়ীর। এর উত্তর এর খোঁজ চলেছে অনেক । মিলেছে এক অবাক করা উত্তর ও । কি সেই উত্তর? আসুন দেখে নেওয়া যাক ।

এক ব্যবসায়ী এ বিষয়ে জানালেন, বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ। তাই ঘোজাডাঙা সীমান্তে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে থাকা টন টন পেঁয়াজ নষ্টের মুখে। জলের দরে বিকোচ্ছে সেই পেঁয়াজ।ঘোজাডাঙা ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরোয়ার্ডিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কান্তি দত্ত বলেন, ‘১৪ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রের পক্ষে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের নির্দেশিকা জারি হতেই ক্ষতির মুখে পড়েছেন বহু ব্যবসায়ী।

২৭৫টি পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক আটকে গিয়েছে সীমান্তে।এক একটি ট্রাকে ১২-১৫ মেট্রিক টন পেঁয়াজ রয়েছে। কিছুটা পচন ধরতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে পেঁয়াজ ভর্তি বহু গাড়ি সীমান্ত থেকে ফিরে গেলেও এখনও ৫০-৬০টি লরি সীমান্তের বিভিন্ন পার্কিংয়ে  দাঁড়িয়ে ।

পেঁয়াজ ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এক ব্যবসায়ী জানান যে সীমান্তে প্রায় ২৭৫ টি পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক আটকে রয়েছে। তাদের মধ্যে বেশকিছু ট্রাকের পেঁয়াজের পচন হতে শুরু করেছে কাজেই এই মুহূর্তে যদি তারা পেঁয়াজ না বিক্রি করে তাহলে ক্ষতি হবে কোটি টাকার । তাই যতটা পাওয়া যায় সেই দামে বিক্রি করে দিচ্ছে পেঁয়াজ।

তবে ক্রেতাদের মধ্যে দেখা গেছে এক আনন্দের উচ্ছ্বাস। বেশকিছু ক্রেতা বলেছে দু-একটা পিয়াজে পচন হলেও এত কম দামে পেঁয়াজ পাওয়াটা সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার ।এরকম সুযোগ বারবার আসেনা ।একসঙ্গে কিনে রেখেছি অনেকটা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button