এক রাতেই ভাগ্যবদল! মাত্র 30 টাকা বিনিয়োগ করেই রাজমিস্ত্রি হলেন একরাতে 99 লক্ষ টাকার মালিক!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-কথাতে আছে ভাগ্যের চাকা যে ঠিক কখন কার ঘরে তা কেউ জানে না । এই ভাগ্যের চাকার একদিকে যদি সুখি সাফল্য জীবন থাকে তাহলে অন্য দিকে থাকে অসুখী জীবন । জীবনচক্রে প্রতিনিয়ত প্রতিটা মানুষের ক্ষেত্রে ঘুরতে থাকে ভাগ্যের চাকা। কারোর সময়ের আগে তো কারো সময়ের পর । কিন্তু আমরা এই ভাগ্যের চাকতে ঘোরানোর জন্য করে চলি দিনরাত পরিশ্রম । তার মধ্যে অন্যতম একটি হলো লটারি টিকিট কাটা।

অনেকের বিশ্বাস যে এই লটারি টিকিটের মাধ্যমে ফিরতে পারে ভাগ্য । বদলে যেতে পারে জীবনের সকল কষ্ট । কিন্তু তেমন আর ঠিক হয়ে ওঠে না । এবার তেমনটাই হল। আর এমন একজনের সাথে হল যার হয়তো সত্যি ভাগ্যের চাকা ঘোরাটা নিতান্তই দরকার ছিল।

হুগলির আরামবাগের বাসিন্দা নয়ন দুলে। পেশায় রাজমিস্ত্রি । প্রতিদিন চলে অন্নের জন্য লড়াই । দিনের শেষে কিভাবে অন্ন আসবে তা রীতিমতো তাকে ভাবিয়ে তোলে প্রতিনিয়ত। উপায় একটাই। রাজমিস্ত্রি কাজ। সেই কাজ করে যতটুকু অর্থ আসে তা দিয়ে কোন রকম ভাবে সংসার চালিয়ে নেওয়া যায় ।

কিন্তু এর পাশাপাশি মাঝেমধ্যে বাকি সবার মতই ভাগ্যের চাকা ঘোরানোর জন্য নয়ন কাটতেন লটারি । তেমন কোনো সাফল্য আসেনি এর আগে। কিন্তু হাল ছাড়েনি নয়ন । উপার্জন করা ওই টাকা থেকে কিছু টাকা বাঁচিয়ে প্রতিনিয়ত কাটতে থাকে লটারি । এবং একসময় দেখা গেল ভাগ্য তার সাথ দিয়েছে।

পেশায় রাজমিস্ত্রি ওই নয়ন ৩০ টাকার একটি লটারি কাটে এবং রাতরাটি হয়ে যায় কোটিপতি। । লটারীতে প্রথম পুরস্কার ছিলো এক কোটি টাকা । নয়ন পান সেই প্রথম পুরস্কার । নিমিষে উদাও হয় তার জীবনের সব কষ্ট । ঘুঁচে যায় সব অন্ধকার ।

তবে তিনি জানিয়েছেন এক কোটি টাকা পেলেও রাজমিস্ত্রির কাজ তিনি চালিয়ে যাবেন । ওই টাকায় করবেন নিজের স্বপ্ন পূরণ । আর সেই স্বপ্ন হলো নিজের ছেলে মেয়েকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করে মানুষ করা । এর থেকে আর বড় স্বপ্ন কি হতে পারে একজন খেঁটে খাওয়া মধ্যবিত্ত বাবার?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button