বুধবার ধেয়ে আসছে অতি থেকে অতিভারী বৃষ্টি এই সাত জেলায়, রেড সতর্কতা জারি করে জানাল মৌসম ভবন

নিজস্ব প্রতিবেদন:-চলতি বছর কে অনেকেই মনে করেন দুর্বিষহ বছর। ২০২০ কে ব্যঙ্গ করে অনেকে বলেন “বিষ” বছর । অবশ্যই এর পেছনে যথেষ্ট কারণ আছে ।একের পর এক ঘটে চলেছে খারাপ ঘটনা। সেই প্রথম থেকে অর্থাৎ চলতি বছরের শুরু থেকে শুরু হয়েছে করোনা মতন ভয়াবহ প্যানডেমিক পরিস্থিতি ।ফলস্বরূপ দেশজুড়ে চলছে দীর্ঘ লকডাউন। সাধারণ জনজীবন থেকে রাস্তাঘাট সবকিছু যেন লন্ডভন্ড। তার উপর পশ্চিমবাংলায় বয়ে গেছে আম্ফান এর মতন বিধ্বংসী ঝড় ।তবে সামনের এই ঘটনাকে ” গোদের ওপর বিষফোঁড়া” বলা যেতেই পারে।

দেশ যখন চরম আর্থিক সংকটের মুখে তখন পশ্চিমবঙ্গের উপর দিয়ে বয়ে গেছে আম্ফান এর মতন বিধ্বংসী ঝড় ।লন্ডভন্ড করেছে রাজ্য তথা দেশের আর্থিক অবস্থা। শুধু মাত্র এখানেই থেমে থাকেনি ।এরপরের যে ঘটনাটি বলবো সেটি হয়তো আরও ভ-য়া-ব-হ হতে চলেছে। মহারাষ্ট্রের মুম্বাই এবং থানেতে হতে পারে ভারী বৃষ্টিপাত এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর । জারি করা হয়েছে “রেড অ্যালার্ট” ।

এই সেই মুম্বাই যা কিছু দিন আগে বন্যার কবলে মুখে পড়েছিল। সেই রেশ কাটতে না কাটতে উপস্থিত হল ভারী বৃষ্টিপাত। আবহাওয়া দপ্তর এর সূত্র অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল থেকে মহারাষ্ট্রের মুম্বাই এবং থানের বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে হতে পারে ভারী বৃষ্টিপাত। মেট্রলজিক্যাল ডিপারমেন্ট এই ভারী বৃষ্টিপাতের কথা জানিয়েছে ।করেছে সতর্কবার্তা জারি ।

আইএমডি ইতিমধ্যেই রাজ্যের ১৫ টি জেলার কে চিহ্নিত করেছে যেখানে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে ।সেই সমস্ত জেলা গুলি হল পুনে, রায়গর ,খোলাপুর, রত্নগিরি, সিন্ধুদুর্গ, সাঁতরা, পারভনি, বীড, লাতুর, ওসমানবাদ সহ আরও বেশ কয়েকটি জেলা।

২২ সে সেপ্টেম্বর অর্থাৎ মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টিপাতের কথা জানালেও মুম্বাই ,পুনে, রায়গর ,সাঁতরা সহ বিভিন্ন বেশ কিছু এলাকায় জারি করা হয়েছে “লাল সতর্কবার্তা” বা ” রেড অ্যালার্ট” । এই ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে মুম্বাই এর ট্রাফিক আনা হতে পারে নিয়ন্ত্রণ । এই বৃষ্টির সাথে ৪৫ থেকে ৫৫ কিলোমিটার / ঘন্টা বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হওয়া ।

এছাড়া মৎসজীবীদের উদ্দেশ্যেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে। মৎস্যজীবীদের জানানো হয়েছে, তাঁরা যেন মহারাষ্ট্র-গোয়া উপকূলে বরাবর সমুদ্রের দিকে না রওনা দেন। অরক্ষিত জায়গা থেকে সরানো হচ্ছে সাধসরণ মানুষদের । রাখা হচ্ছে নজরদারি । রীতিমতো ভয়ে প্রহর গুনছে রাজ্যবাসী ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button