লকডাউনে বন্ধ রোজগার! তাই এবার নয়া উপায়ে কাজ শুরু করলো যৌ’নকর্মীরা, আনলো নতুন দিশা

করোনা ভাইরাস কেড়েছে বহু মানুষের রুজি-রোজগার। এই ম-র-ণ ভাইরাস গোটা দেশের অর্থনৈতিক চিত্রটা বদলে দিয়েছে এক নিমেষে। বহু মানুষ কাজ হারিয়ে পথে বসার উপক্রম হয়েছেন। দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই ভাইরাসের প্র-কো-প স-র্ব-না-শ স্বরূপ দেখা দিচ্ছে। কার্ড হারিয়ে বাইরের রাজ্য থেকে বাংলায় ফিরে এসেছেন পর্যায়ে শ্রমিকরা। বিগত পাঁচ মাস ধরে ভয়া-বহ তা-ন্ড-ব চালাচ্ছে এই মা-র-ণ ভাইরাস। করোনার কারণে যৌ-নকর্মীদের পেটে টান পড়েছে।

কারণ এই সময় কোন মানুষই তাঁদের ধারে কাছে ঘেঁষতে চাইছেন না। যার জন্য তাঁদের অন্ন-সংস্থান করাই হয়ে পড়েছে দু-ষ্ক-র। এই সমস্যার আঁচ গিয়ে পৌঁছেছে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই। যেমন জার্মানির বার্লিনের যৌ-নকর্মীরা মার্চ মাস থেকে রোজগার করতে পারছেন না। এই আ-ব-হে জার্মান সরকার যৌ-ন কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছিল করোনার এই ভয়া-বহ সময়ে যৌ-ন সং-সর্গ করা যাবে না কার পরিবর্তে তারা ম্যাসাজ সহ অন্যান্য পরিষেবার সাথে যুক্ত হতে পারেন।

কিন্তু বার্লিনে যৌ-নকর্মীরা দাবি করেছেন খদ্দেররা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যৌ-ন সংসর্গের জন্যই আসেন। তাই অন্য কোন পরিষেবার মাধ্যমে তাদের রুজি রোজগার সম্ভব নয়। জুলাইয়ে শুরুতে যৌ-নকর্মীরা রাস্তায় নেমে বি-ক্ষো-ভে ফে-টে পড়েন। এই মিছিল পার্লামেন্ট পর্যন্ত পৌঁছায়। পৃথিবীর ইতিহাসে বার্লিনের ব্রথেল ছিল প্রথম যৌ-ন পল্লী।

বর্তমানে 50 হাজারেরও অনেক বেশি যৌ-নকর্মী লিগাল ট্রেড লাইসেন্স পেয়েছেন। কিন্তু তাদের বর্তমানে করোনার এই ভয়া-বহ আবহে রিচি রোজগার প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু বর্তমানে ম্যাসাজ বা অন্যান্য পরিষেবার কাজ করতে গেলেও করোনা সং-ক্র-ম-নের একটা আ-শ-ঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button