স্ত্রীর নামে ব্যাঙ্ক একাউন্ট আছে? তাহলে আপনার জন্য দারুন সুখবর, পাবেন বৃহৎ অংকের টাকা, যেভাবে করবেন আবেদন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-বয়সের সাথে সাথে প্রত্যেকের মনে একটা ভয় থাকে যে শেষ বয়সে এসে দেখবে কে? কোথাও যদি ছেলে মেয়ে বিগ-ড়ে গিয়ে বসে তাহলে? শেষ সম্বল বলতে মা-বাবা থেকে থাকে ছেলে বা মেয়ে। কিন্তু তারা যদি শেষ বয়সে অস্বী-কার করে তাহলে কোথায় যাবে ? এরকম নানা দু-শ্চিন্তা নিয়ে রীতিমতো দিন কাটে দেশের অনেক বাবা-মায়ের । থাকার ব্যবস্থা হয়ে যাবে। কিন্তু টাকা যোগাবে কে ?

তাহলে বলে রাখি এবার আর চিন্তা নেই শেষ বয়সে আপনাদের দেখার জন্য রয়েছে সরকার সরককার । সরকার নতুন একটি প্রকল্প শুরু করেছে যার মাধ্যমে আপনি এখন থেকে ইনভেস্ট করলে পেতে পারেন শেষ বয়সে পেনশন ।তবে শর্ত সা-পেক্ষ একটাই আপনার নিজের নয়, আপনার স্ত্রীর নামে থাকতে হবে অ্যাকাউন্ট । এই একাউন্টে ইনভেস্ট করে আপনি নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন ।

এমনকি গ্রাহকের অবর্তমানে প্রতিনিয়ত আয় করতে পারে গ্রাহকের স্ত্রীরা ।এই স্কিমের নাম” ন্যাশনাল স্কিন” । তবে এ ব্যাপারে আরও বিস্তারিত জানিয়েছে যা নিচে প্রদত্ত ।সরকারি নতুন স্কিম এ বলা হচ্ছে যে গ্রাহকরা তাদের স্ত্রীর নামের একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। এবং ৬০ বছর পূরণ হলেই এক্টিভেট হবে এই অ্যাকাউন্ট। মিলবে টাকা .

তাছাড়া গ্রাহক স্ত্রীর প্রতি মাসে কত টাকা করে পাবে সেটা নির্ধারণ করতে পারবে গ্রাহক। সর্বনিম্ন ১০০০ দিয়ে শুরু করা যেতে পারে । মাসিক বা বার্ষিক টাকা দেবার সুবিধা আছে এক প্রকল্পে । ৬০ বছর শেষ হলে মিলবে অনেকগুলি টাকা। এর ফলে আজ শেষ বয়সে কারো জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। বা কারো কাছে হাত পাততে হবে না। নিজেই স্বনির্ভর হওয়া যেতে পারে এই পেনশন এর মাধ্যমে।সরকারের এই সিদ্ধান্তের রীতিমতো বেশ খুশি সাধারণ মানুষেরা।

মাথা থেকে একটা বড় চিন্তার ভার যেন নামিয়ে দিল সরকার। শেষ বয়সে এসে কারো কাছে যেতে হাত না পাততে হয় এবং কোন যাতে কষ্ট না হয় তার জন্য এই স্কিম । এমনটা জানিয়েছে সরকারি কর্মীরা। তাহলে অপেক্ষা কিসের যদি আপনি এখনো পর্যন্ত ন্যাশনাল স্কিমের আওতায় না এসে থাকেন তাহলে আজই আবেদন করুন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button