কোভিড কেয়ার সেন্টারে একের পর এক মহিলার নগ্ন ছবি তুলে গ্রেফতার সিপিএম নেতা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-দেশের এই করোনার ভ-য়া-বহ পরিস্থিতিতে বাঁ-চার উপায় বলতে একমাত্র হসপিটাল । অর্থাৎ উপযুক্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা ছাড়া এই রো-গ কি ভ-য়া-বহ আকার ধারণ করতে পারে তা আমাদের সকলের জানা ।কাজেই সরকারি অর্থ দিয়ে বিভিন্ন যায়গায় সাময়িকভাবে হলেও গড়ে তোলা হচ্ছে কোভিড সেন্টার । লক্ষণযুক্ত রোগীরা ভর্তি হয়ে থাকেন সেখানে । কিন্তু সেই সেন্টারে যদি ঘটে এমন এক ঘটনার যেটা শোনার পর আর কেউ কোভিড সেন্টারে যেতে সাহস পাবেন না। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে কেরলের এক কোভিড সেন্টারের।

ঘটনাটি ঘটে কেরলের রাজধানী তে অবস্থিত মুল্লাবিলা এলাকায়। বাম শাসিত ওই অঞ্চলে কোভিড সেন্টারে থাকা মেয়েদের নগ্ন ছবি মোবাইলে ভিডিও রেকর্ডিং করার অভিযোগ ওঠে এক বাম যুব নেতার বিরুদ্ধে। তার নাম শালু ।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ধৃত ব্যক্তির নাম শালু। সে সিপিএম-এর সক্রিয় সদস্য এবং সিপিএম-র যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই-এর ইউনিট প্রেসিডেন্ট। কেরল ডিওয়াইএফআই-এর চেঙ্গল ইউনিটের দায়িত্বে রয়েছে এই শালু। রিপোর্ট পজিটিভ আসার কারণে তাকেও ওই কোভিড কেয়ার সেন্টারে ভর্তি করা হয় চিকিৎসার জন্য। আর সেখানেই ঘটে গিয়েছে বড় বি-প-ত্তি।

তথ্যানুসারে বছর চব্বিশের এই বামনেতা গোপনে মেয়েদের শৌ-চা-ল-য় মোবাইল রেখে আসে এবং তার সাথে সাথে মোবাইলে অন করে আসে ভিডিও রেকর্ডিং। যাতে পরবর্তী সময়ে মেয়েদের নগ্ন ছবি ধরা পড়ে তাতে ।কিন্তু শেষ র-ক্ষা হল না । ঘটনাটি নজরে আসে এক রোগীর এবং সে তৎ-ক্ষ-ণাৎ সেখানকার পুলিশকে জানায়। পুলিশ এই মোবাইলটি নিয়ে ত-দ-ন্ত শুরু করলে জানতে পারে যে ওই মোবাইলটা শালু নামে কোন এক ব্যক্তির নামে রেজিস্ট্রি করা আছে । যে শালু ওই সেন্টার এ ভর্তি । এরপরে ওই ২৬ বছরের বাম যুব নেতাকে গ্রে-প্তা-র করে পুলিশ।

কোরোনা আ-ক্রা-ন্ত হওয়ার পর দ্রুত সারা দিচ্ছিলো চিকিৎসায় এই বাম যুবনেতা ।কিন্তু তার এই কাজের জন্য আর বোধহয় তারা বাড়ি ফেরা হলো না ।একেবারে সোজা থানায় যেতে হচ্ছে তাকে ।রীতিমত এই ঘটনা সামনে আশাতে প্র-চ-ণ্ড চা-পে-র মুখে বাম দল গুলি। এবং তার সাথে সাথে তীব্র প্র-তি-ক্রি-য়া কেরল জুড়ে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button