বলিউড আপনার বাপের না, আর আপনি কাউকে ফ্রীতে খেতেও দেন না, জয়াকে ধুয়ে দিলেন পর্দার ভীষ্ম পিতামহ!

এখন সংবাদমাধ্যমে করোনার পর যদি কোন ঘটনা শিরোনামে থেকে থাকে তা হল বলিউডের স্বজনপোষণ এবং মা-দ-ক চ-ক্র ।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য কিছুদিন আগে ঘটে যাওয়া সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ-ত্যু-কে ঘিরে রীতিমত গরম পরিবেশ তৈরি হয় বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ।

চলতে থাকে প্রশ্নের পর প্রশ্ন ,তার সাথে চলতে থাকে সমর্থন এবং বিরোধিতা পাশাপাশি । বলিউডের এই স্বজনপোষণ এবং মা-দক-চক্রে-র যোগ নিয়ে একের পর এক মুখ খুলতে থাকেন বিভিন্ন তারকার । সেই বক্তব্য গুলি কী ঘিরে চলতে থাকে বিরোধিতা এবং সমর্থন ।

বলিউড অভিনেত্রী এবং সমাজবাদী পার্টির রাজ্যসভার সাংসদ জয়া বচ্চনের “থালা” সম্পর্কিত বক্তব্যকে কেন্দ্র করে রীতিমতো প্রশ্নের ঝড় ওঠে ইন্ড্রাস্ট্রি তে । উনার বিরুদ্ধে একেরপর এক তারকা যেমন মুখ খুলেছেন ঠিক তেমনই অনেকে আবার আবার সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন।

বেশ কিছুদিন আগে ভোজপুরি অভিনেতা রবি কিষান তথা বিজেপি সাংসদ ড্রাগ তথা বিজেপি সাংসদ ড্রা-গ সম্পর্কিত একটি বয়ান দিয়েছিলেন ।সেই বয়ান এর পরিপ্রেক্ষিতে জয়া বচ্চন পাল্টা জবাব দেয় এবং বলেন যে” যে থালাতে খায় সেই থালাকেই ছেদ করে এরা ” । শুধু মাত্র এখানেই তিনি থেমে থাকেননি । এরপর একের পর এক কটাক্ষের সুর সুর চিড়িয়েছিলেন অভিনেত্রী জয়া বচ্চন।

তবে ভোজপুরি অভিনেতা রবি কিষন দমে যাওয়ার পাত্র নয় তা আরও পাত্র নয় তা আরও একবার তিনি প্রমাণ করে দিলেন। তিনি তার প্রশ্নের পরিপেক্ষিতে জবাব দিয়ে বলেন “যে থালাতে ড্রাগস দেওয়া হয় আমি সেই থালে ফুটো করব “।

তবে এরপর আসে গল্পের নতুন মোড় । প্রশ্ন-উত্তরের খেলায় জুড়ে যায় ছোটদের জনপ্রিয় সিরিয়াল শক্তিমান খ্যাত মুকেশ খান্না । তিনি বলেন ” বলিউডে দীর্ঘদিন ধরে স্বজনপো-ষ-ণ চলে আসছে, বেড়ে চলেছে গ্যাংব্যাং । রবি কিষান মা-দ-ক যোগ সম্পর্কে প্রশ্ন উঠাচ্ছেন আর আপনি বলছেন যে থালাতে খায় সেই থালায় ফুটো করবে ” এই বক্তব্য নিতান্ত একটি হাস্যকর ছাড়া কিছুই নয় ।

মুকেশ খান্না এ ব্যাপারে আরও বলেছেন ,তিনি বলেছেন “আপনি বলতে পারতেন তার বক্তব্য সঠিক কি ভুল কিন্তু আপনি আমাদের খেতে দেননি। এই ইন্ডাস্ট্রিতে মানুষ পরিশ্রম করে টিকে আছে নিজের যোগ্যতায় । একটা পরিবারের মত গোটা টিম গোটা টিম টিম কাজ করে এর পিছনে ।বলিউড ইন্ডাস্ট্রি কারো বাবার নয় “। যদিও এর পরিপ্রেক্ষিতে জয়া বচ্চনের থেকে পাল্টা কোন জবাব এখনো পর্যন্ত মেলেনি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button