বড় খবর: বাংলার বেকার যুবক-যুবতীদের জন্য বড় সুখবর, বাংলায় কর্মসংস্থান নিয়ে বড় ঘোষণা মমতার!

নিজস্ব সংবাদদাতা: দূর্গাপূজোর বেশি দেরি নেই,এক মাসেরও কম সময় রয়েছে হাতে। দূর্গাপূজোর ঢাকের মতোই আরেকটি দামামা বাজবার সময় চলে এসেছে। আগামী বছরের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনের আগেই, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই ২০২০ সালের সংকটকালে একদিকে লকডাউনের প্র-কো-প অন্যদিকে করোনার বিষ ছোবলে সমাজের সর্বস্তরের মতো যুবসমাজও কাজের অভাবে হতাশাগ্র-স্ত । এরই মাঝে যুবসমাজকে আশ্বস্ত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।বুধবার,২৩ শে সেপ্টেম্বর নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,” বানতলা, দিঘা, মেদিনীপুরের মতো একাধিক জায়গায় বিনিয়োগ হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে অনেকে চাকরি হারিয়েছেন। যুব সমাজের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে উঠেছে কর্মসংস্থান।”

এরই সঙ্গে তিনি জানান,”বাংলায় লক্ষ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। সেই পরিকল্পনা করে ফেলেছে তার সরকার। তাই চাকরি নিয়ে কোনও দুশ্চিন্তা করার দরকার নেই।” ইতিমধ্যেই ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগের শিল্পের জন্য (এমএসএমই) নতুন করে ১০০টি পার্ক তৈরির অনুমোদন রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে।।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরো জানান, “বানতলায় চর্মশিল্পে কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। জার্মানের বিনিয়োগের মেদিনীপুরে সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প হচ্ছে। তাতেও প্রচুর মানুষ কাজের সুযোগ পাবেন। দিঘাতেও নতুন শিল্পে কাজ পাবেন বহু বেকার যুবক-যুবতী। আমাদের এখানে জঙ্গল, সমুদ্র, পাহাড় সবই রয়েছে। সেক্ষেত্রে পর্যটন ব্যবসারও উন্নতি করা সম্ভব।”

আগেই তিনি ঘোষনা করেছিলেন, রিলায়েন্স জিওর লগ্নিতে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা খরচে কেবল ল্যান্ডিং ষ্টেশন তৈরী হতে চলেছে। দীঘায় এই কেবল ল্যান্ডিং স্টেশন তৈরী হয়ে গেলে, ওখানকার পর্যটনশিল্প আরো লাভজনক হবে। এরকম অনেক বিনিয়োগকারী পশ্চিমবঙ্গের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছেন,তাদের আহ্বান করে মুখ্যমন্ত্রী জানান,”বাংলায় বিনিয়োগ করুন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button