স্কুলের মিড ডে মিল নিয়ে বড় ঘোষণা কেন্দ্রের, এবার খুশি শিক্ষকেরা!

কেন্দ্রীয় স্কুল গুলির জন্য এক নির্দেশিকা জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের শিক্ষা প্রদানের পাশাপাশি ভোটের কাজ সহ মিড-ডে-মিল দেখাশোনার দায়িত্ব পালন করতে হয়। শিক্ষকতার পাশাপাশি অন্যান্য এই সব দায়িত্ব পালনের বিরো-ধিতা করে বারবার অভিযোগ করেছেন শিক্ষকরা। কারণ শিক্ষকরা বারবার বলেছেন যে, শিক্ষকতার পাশাপাশি এই মিড-ডে-মিল দেখাশোনা করা, ভোটের ডিউটি দিতে যাওয়া এইসব করতে গিয়ে শিক্ষকতায় ভাটা পড়ে।

বিশেষ করে স্কুলের শিক্ষকরা অথবা শিক্ষিকারা মিড-ডে-মিল দেখাশোনা করতে গিয়ে অনেকটা সময় ব্যয় করে ফেলেন যার ফলে পরপর বেশ কিছু কাজ হয়ে ওঠেনা। পঠন-পাঠন ব্যাহত হয়। এই মর্মে কেন্দ্র এক গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছে। কেন্দ্র বলেছে মিড ডে মিল , কোট এর যাবতীয় কাজ ইত্যাদি করতে গিয়ে শিক্ষকরা বেশ কিছুটা সময় ব্যয় করেন যার দরুন পঠন-পাঠনের বিস্তর ব্যাঘাত ঘটতে থাকে। তাই এবার গত বুধবার কেন্দ্রীয় সরকার এক নতুন নির্দেশ দিয়েছে।

এই নতুন শিক্ষানীতি অনুযায়ী এখন থেকে ভোট বা অন্যান্য প্রশাসনিক কাজের দায়িত্ব শিক্ষকদের অর্পণ করা যাবে না। শিক্ষা প্রদান ব্যতীত কোনো রকম অশিক্ষা মূলক কাজে শিক্ষকদের নিয়োগ করা যাবে না। অর্থাৎ মিড ডে মিলের রান্নার কাজ অথবা ভোটের কাজ ইত্যাদি এবার শিক্ষকদের করতে হবে না।

শিক্ষকরা শুধুমাত্র শিক্ষা প্রদান করবেন। কেন্দ্র বলেছে শিক্ষকদের অন্যান্য দায়িত্ব থেকে মুক্ত করার ফলে এবার স্কুলের মধ্যে পড়াশোনার আরো জোরালো পরিবেশ তৈরি হবে এবং শিক্ষকরা মন দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাদান করতে পারবেন। আপামর কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে যথেষ্ট খুশি হয়েছেন। মিড ডে মিল এর জন্য অন্যান্য কর্মচারীদের ওপর এর ভার ন্যস্ত হতে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button