বাংলার মুখ্যমন্ত্রীও নারী, তবু রাজ্যের নারী ও শিশুদের দু’র্দশার প্রতি সংবেদনশীল নন মমতা, ফেসবুক লাইফে মমতাকে আ’ক্র’মণ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আ’ক্র’মণ করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে। বাংলার বর্তমান পরি’স্থি’তি তু’মুল সমালোচনা করেছেন তিনি। ওই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অ’ভি’যোগ করেছেন যে, “রাজ্যের শীর্ষ আসনে রয়েছেন একজন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী অথচ তাঁর শা’সন’কালে বাংলাতে শীর্ষস্থানে রয়েছে না’রী পা’চার।” ওই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অ’ভি’যোগ করেছেন যে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের নারী এবং শিশুদের দু’র্দ’শার প্রতি নাকি বি’ন্দু’মাত্র সং’বে’দন’শীল নন।

গতকালই ফেসবুক লাইভে রাজ্যের না’রী’দের বর্তমানের ভ’য়া’বহ প’রি’স্থিতির কথা উল্লেখ করে সমা’লো’চনা করেন ওই কে’ন্দ্রীয় মন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে আ’ক্র’মণ করে তিনি বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গের নারীরা যৌ’ন হে’ন’স্থার শি-কা-র। অন্যান্য হে’ন’স্থার মুখোমুখি সর্বদাই তাঁদের হতে হয় কিন্তু এখনও পর্যন্ত অনেক অ’ভি’যুক্ত ধরা পড়েনি। এই কথাটা যন্ত্র’ণাদা’য়ক হলেও বড়ই খাঁটি সত্যি।

যেহেতু পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর আসনে আসীন হয়েছেন একজন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী তাই রাজ্যের মহিলারা তার কাছ থেকে কল্যাণকর অনেক কাজ আশা করেন কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ বর্তমানে মা’নব’পা’চারে শীর্ষস্থান দখল করেছে। এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রকল্প ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ পরিস্থিতিকে শক্ত হাতে সমাল দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে যথেষ্ট চি’ন্তি’ত। আম্ফান এর ত্রাণ বিলি নিয়ে রাজ্যের মানুষের মধ্যে বিস্তর অভি’যো’গের দেখা মিলেছে।

অনেকেই অ’ভি’যোগ করেছেন যে তারা ঠিকঠাক ত্রাণ পাননি। তবুও এই আব’হের মধ্যে সারাদেশে গরিব মানুষের মুখে খাবার তুলে দিয়েছে কেন্দ্র।”এই উদ্ধৃত কথাগুলো বলেছেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী। ক’রো’না পরি’স্থিতি এবং আম্ফান এর পরবর্তী ত্রাণ বিলি নিয়ে বারবার রাজ্য সরকারের স’মালো’চনা করেছে বি’রোধী’রা।

https://www.facebook.com/BJPDebasreeChaudhuri/posts/1010801746017149

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button