স্পাইডারম্যানের মতো দারুন কায়দায় অসাধারণ ভঙ্গিতে তরতরিয়ে দেওয়ালে চড়ছে ৭ বছরের খুদে, ভিডিও ভাইরাল

বর্তমানে আমরা বিংশ শতাব্দীতে এসে উপনীত । যেমন প্রযুক্তি উন্নত হচ্ছে তার সাথে আমরাও পা চালিয়ে নিজেদেরকে মানিয়ে নিয়ে চলতে শিখেছি ।বর্তমানে আমরা সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে রাত্রে ঘুমোনো পর্যন্ত আমরা সবাই কিন্তু কিছু না কিছু কাজে ব্যাস্ত থাকি।বর্তমানে মুঠো ফোন কিন্তু আমাদের জীবনে একটি বড়ো প্রভাব ফেলেছে। সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে সেই যে আমাদের চোখ নিযুক্ত হতে যায়, আর তার সাথে আছে সেই বোকা বক্সের মধ্যে নেশায় মশগুল হোয়ে পড়া ।

আমরা সবাই কিন্তু বর্তমানে একটু টলিউডকে ছেড়ে যুগের সাথে সাথে হলিউডকে একটু বেশি পছন্দ করি ,আর তার জন্যই আমাদের বাচ্চা থেকে বুড়ো সবার কাছে প্রিয় সেই অতি পরিচিত স্পাইডারম্যানের চরিত্রকে মনে রেখেছি তেমনি সম্প্রতি ভাইরাল হলো একটি ভিডিও । সেই ভিডিও তে দেখা যাচ্ছে একটি ক্ষুদে বালক সে কিনা কোনো কিছু কে অবলম্বন না করে তরতরিয়ে উঠে যাচ্ছে মসৃন প্রাচীরে। আর এমন কণ্ড থেকে সোশাল মিডিয়া তে অবাক মিডিয়ার নেটিজেনেরা।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বালকটি সম্পূর্ণ তার হাত ও পায়ের উপর সম্পূর্ণ ভর করে প্রাচীরে উঠছে অতি সহজে।আর এমন ভিডিও সামনে আসতেই সোশাল মিডিয়া নেটিযেনেরা ওই বালক কে স্পাইডারম্যানের সংস্করণ বলে আখ্যা দিয়েছেন।সংবাদ সংস্থা মারফত জানা গিয়েছে ওই খুদের বাড়ি উত্তরপ্রদেশের কানপুরে।

তার নাম যশার্থ সিংহ গৌর। বর্তমানে এই খুদে তৃতীয় শ্রেণীর পড়ুয়া। আর এমন দেওয়ালে চড়ার পারদর্শিতা দেখানোর পাশাপাশি সে ওই সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছে বড় হয়ে সে একজন আইপিএস অফিসার হতে চায়। সেটাই তার লক্ষ্য।তাকে জিজ্ঞাসা করা হলে যে এমন চিন্তা ভাবনা কিংবা সেই অদম্য সাহস সে কোথায় পেল। তার উত্তরে সে জানায় স্পাইডারম্যানের চরিত্র তাকে খুব ভাবতে সাহায্য করেছে ,সেই সিনেমা দেখে সে অনুপ্রাণিত।তারপর সে ধীরে ধীরে অভ্যাস করে ফেলে এবং শেষ পর্যন্ত সে সফল।

প্রথমটা তে একটু অসুবিধা হতো প্রায় পড়ে যেত কিন্তু দীর্ঘ অনুশীলনের পর সে তা অতি সহজে রপ্ত করে ফেলেছে। যেটা কিনা তার বাবা মা অসাধ্য সাধন বলে মনে করেন । তবে এইভাবে দেওয়ালে চাপার সময় সে ভয় করে না বলে জানিয়েছে। কারণ যখনই দেওয়ালে স্লিপ করতে শুরু করে তখনই সে ঝাঁপিয়ে নিচে নেমে যায়। তাতে কোন ক্ষতি হয় না আর পুনরায় ওঠার চেষ্টা শুরু হয়।আর এই ভাবেই তার পথ চলা শুরু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button